সিবিএন ডেস্ক: মাত্র এক সপ্তাহের ব্যবধানে উগ্রপন্থি জঙ্গিগোষ্ঠী তালেবান আফগানিস্তানের দশটি প্রাদেশিক রাজধানীর দখল নিয়েছে। সবশেষ কৌশলগত দিক থেকে খুবই গুরুত্বপূর্ণ গজনিরও দখল নিয়েছে সশস্ত্র সংগঠনটি।

রাজধানী কাবুল ও কান্দাহার প্রদেশের মধ্যে সংযোগ রক্ষাকারী মহাসড়কের মধ্যেই গজনির অবস্থান। দেশটির দক্ষিণে তালেবানদের শক্তিশালী ঘাঁটি রয়েছে। ফলে ধারণা করা হচ্ছে, গজনির দখল নেওয়ায় উগ্রপন্থি গোষ্ঠীটির কাবুল অভিমুখে অভিযান শক্তিশালী করবে। ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গজনির প্রাদেশিক পরিষদের একজন সদস্য বলেন, তালেবান গোষ্ঠী শহরের অধিকাংশ এলাকার নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে। আফগান সরকারি নিরাপত্তা বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে রয়েছে শুধু গজনি শহরের উপকণ্ঠের একটি পুলিশ চৌকি।

গত মাসে যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দারা জানিয়েছিলেন, আফগানিস্তান থেকে বিদেশি সেনা প্রত্যাহারের ছয় মাসের মধ্যে তালেবান কাবুল দখল করতে পারে। গতকাল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, ৯০ দিনের মধ্যে তালেবান আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল দখল করে নিতে পারে। এর মধ্যেই গজনি দখলে নেওয়ার খবর এলো।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের কর্মকর্তা জানান, তালেবান বর্তমানে আফগানিস্তানের ৬৫ শতাংশ দখলে নিয়ে ফেলেছে।

১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত আফগানিস্তানের বেশির ভাগ জায়গায় শাসন পরিচালনাকারী তালেবানের ক্ষিপ্র গতিতে অগ্রসর হওয়া দেখে আফগান সরকার ও তার মিত্ররা হতবাক হয়েছে।

জাতিসংঘ জানিয়েছে, গত এক মাসের সংঘাতে আফগানিস্তানে এক হাজারের বেশি সাধারণ মানুষ নিহত হয়েছেন। আন্তর্জাতিক রেড ক্রস কমিটি জানিয়েছে, ১ আগস্ট থেকে অন্তত চার হাজার ৪২ জন সাধারণ মানুষ আহত হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •