মোঃ জয়নাল আবেদীন টুক্কু:
পার্বত্য বান্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি ও লামা উপজেলায় মহামারী করোনার কারণে আর্থিক সংকটে পড়েছেন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা। করোনায় কর্মহীন হয়ে পড়েছে এ সকল প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা। আবার অনেকে চলছেন ধারদেনা করে। এমনই একশতাধিক শিক্ষকের পাশে দাঁড়িয়েছেন আলহাজ্ব শামসুল হক ফাউন্ডেশন।

সুপার পেট্রোকেমিক্যাল লিমিটেডের অর্থায়নে আলহাজ্ব শামসুল হক ফাউন্ডেশনের বাস্তবায়নে উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১০ আগস্ট ) সকালে নাইক্ষ্যংছড়ির কাগজী খোলা আদর্শ ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার হলরুমে লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের বিভিন্ন হাফেজ খানা,এতিম খানা,নূরানী মাদ্রাসা, এবতেদায়ী মাদ্রাসা, দাখিল মাদ্রাসার কর্মহীন শিক্ষকদের মাঝে সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানের মাধ্যমে উপহার সামগ্রী তোলে দেওয়া হয়।

সাংবাদিক আবদুর রশিদের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ইউপি সদস্য মোঃ নাছির উদ্দীন, বিশেষ অতিথি ছিলেন কাগজী খোলা আদর্শ ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাওলানা মোঃ রেদুয়ানুল হক,বিশিষ্ট সমাজ সেবক ওসমান সরওয়ার, মনসুর আলমসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

এসময় প্রধান অতিথি বলেন পার্বত্য এলাকায় কর্মহীন অসহায় শিক্ষকদের কষ্টের কথা চিন্তা করে দূর্গম পাহাড়ি জনপদের শিক্ষকদের ত্রাণ সামগ্রী দেওয়ায় আলহাজ্ব শামসুল হক ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সহ কর্মকর্তা কর্মচারী ও যাদের অর্থায়নে আজ শিক্ষক সহ অসহায় মানুষের দুঃখ কষ্ট একটু হলেও দূর হলো। তিনি সুপার পেট্রোকেমিক্যাল লিমিটেডের সকলের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন আগামীতেও এ এলাকার অসহায় মানুষের পাশে থাকার জন্য অনুরোধ জানান।

এসময় মুঠোফোনে আলহাজ্ব শামশুল হক ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মুহাম্মদ নাছির উদ্দীন বলেন, দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের শুরু থেকে আলহাজ্ব শামসুল হক ফাউন্ডেশন পক্ষ থেকে ধর্ম, বর্ণ, নির্বিশেষে পার্বত্য এলাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে লকডাউনে কর্মহীন মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী, করোনা রোগীদের জন্য অক্সিজেন সরবরাহ, করোনা ভাইরাসরোধে বিভিন্ন স্বাস্থ্য সামগ্রী বিতরণ করে যাচ্ছে। এছাড়াও এতিম অসহায় হত দরিদ্র দুস্থ মানুষের মাঝে কোরবানির মাংস বিতরণসহ আগামীতে বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে আমাদের কার্যক্রম অব্যহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •