মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

সোমবার ৯ আগস্ট কক্সবাজার জেলার ২ টি প্রতিষ্ঠানে ২ ধরনের পদ্ধতিতে করোনা’র নমুনা টেস্ট করে মোট ১৬৩ জনের দেহে করোনা শনাক্ত করা হয়েছে।

তারমধ্যে, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ল্যাবে ৭৯৪ জনের নমুনা টেস্ট করে ১৫৫ জনের টেস্ট রিপোর্ট ‘পজেটিভ’ পাওয়া গেছে। বাকী ৬৩৯ জনের নমুনা টেস্ট রিপোর্ট ‘নেগেটিভ’ আসে।

এছাড়া, কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে একইদিন এন্টিজেন টেস্ট (Antigen Test) পদ্ধতিতে ৬৫ জনের নমুনা টেস্ট করে ৮ জনের টেস্ট রিপোর্ট ‘পজেটিভ’ শনাক্ত করা হয়। বাকী ৫৭ জনের টেস্ট রিপোর্ট নেগেটিভ আসে।

কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ট্রপিক্যাল মেডিসিন ও সংক্রামক ব্যাধি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ শাহজাহান নাজির সিবিএন-কে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের (পিসিআর) ল্যাবে শনাক্ত হওয়া ১৫৫ জন করোনা রোগীর মধ্যে ১২ জন আগে আক্রান্ত হওয়া রোগীর ফলোআপ টেস্ট রিপোর্ট। বাকী নতুন শনাক্ত হওয়া ১৪৩ জনের মধ্যে চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার রোগী ৪ জন। অবশিষ্ট ১৩৯ জন সকলেই কক্সবাজারের রোগী।

তারমধ্যে, ২১ জন রোহিঙ্গা শরনার্থী। এছাড়া সদর উপজেলায় ২৪ জন, রামু উপজেলায় ৫ জন, উখিয়া উপজেলায় ৩৬ জন, টেকনাফ উপজেলায় ২৭ জন, চকরিয়া উপজেলায় ১০ জন, পেকুয়া উপজেলায় ৮ জন, কুতুবদিয়া উপজেলায় ৩ জন এবং মহেশখালী উপজেলার ৫ রোগী রয়েছে।

এনিয়ে, ২ টি প্রতিষ্ঠানে আজ ৯ আগস্ট পর্যন্ত শনাক্ত হওয়া রোগী সহ কক্সবাজার জেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা হলো-১৯ হাজার ৭৯২ জন। এগুলো ছাড়া কক্সবাজারের অন্যান্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সমুহে এন্টিজেন টেস্ট পদ্ধতিতে আজ করোনা শনাক্ত হওয়া রোগীও রয়েছে। যা প্রতিদিন জেলার করোনা শনাক্ত হওয়া রোগীর মোট সংখ্যা নিরূপণে যোগ হবে।

এদিকে, গত ৮ আগস্ট পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কক্সবাজার জেলায় মৃত্যুবরণ করেছে ২১১ জন। তারমধ্যে, ২৯ জন রোহিঙ্গা শরনার্থী। গত ৮ আগস্ট পর্যন্ত সুস্থতার তুলনায় মৃত্যুর হার ১’৩৩% ভাগ।একইসময়ে সুস্থ হয়েছেন ১৫ হাজার ৮৫২ জন করোনা রোগী। আক্রান্তের তুলনায় সুস্থতার হার ৮১’৪৪% ভাগ। ৮ আগস্ট নমুনা টেস্টের তুলনায় পজেটিভিটির হার ছিল শতকরা ২৯’৬৮ ভাগ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •