সিবিএন ডেস্ক:
নারী কর্মকর্তাদের বাদ রেখে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মৃত্যুর পর ‘গার্ড অব অনার’ দেওয়ার সুপারিশ প্রত্যাহার করেছে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি।

স্থায়ী কমিটি গত ১৩ জুনের বৈঠকে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের গার্ড অব অনার দেওয়ার ক্ষেত্রে নারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) বিকল্প খুঁজতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করে।

গতকাল রোববার কমিটি আগের বৈঠকের কার্যবিবরণী অনুমোদনের সময় সুপারিশটি বাদ দেয়।

গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে সংসদীয় কমিটির প্রধান শাহজাহান খান বলেন, ‘আগের বৈঠকের কার্যবিবরণী অনুমোদনের সময় ওই সুপারিশটি বাদ দেওয়া হয়েছে।’

বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কারও মৃত্যু হলে জেলা বা উপজেলা প্রশাসন তাদের রাষ্ট্রীয় সম্মাননা দেয়। নিয়ম অনুযায়ী, জেলা প্রশাসক বা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারা (ইউএনও) এ সম্মাননা দিয়ে থাকেন।

বর্তমানে দেশের বেশ কয়েকটি জেলা ও উপজেলায় প্রশাসনের নেতৃত্ব দিচ্ছেন নারী কর্মকর্তারা।

দ্য ডেইলি স্টারের সঙ্গে আলাপকালে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী এ কে এম মোজাম্মেল হক সম্প্রতি জানান, দেশের সংবিধানের পরিপন্থী হওয়ায় স্থায়ী কমিটির সুপারিশটি মেনে নেওয়া হবে না।

সমাজের বিভিন্ন মহল থেকেও কমিটির এই সুপারিশের সমালোচনা হয় এবং দাবি ওঠে যে এই ধরনের বৈষম্য সংবিধানের সম্পূর্ণ পরিপন্থী।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন সংসদ সদস্যও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হস্তক্ষেপের আহ্বান জানিয়ে প্রস্তাবটির বিরোধিতা করেছিলেন।

এ বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সম্প্রতি বলেছেন যে সরকার বিষয়টি যথাযথভাবে দেখবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •