জে.জাহেদ, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

চট্টগ্রামে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত আরও এক রোগী শনাক্ত হয়েছে। ৪৮ বছর বয়সী পুরুষ এ রোগী চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।গত শুক্রবার (৬ আগস্ট) তাকে চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আজ সোমবার (৯ আগস্ট) চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এস এম হুমায়ন কবির। তিনি বলেন, ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত রোগী পুরুষ। তাকে হাসপাতালে মেডিকেল বোর্ড গঠন করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এর আগে জুলাই মাসের শেষ দিকে ৬০ বছর বয়সী এক নারীর শরীরে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস ধরা পড়ে। যা ছিল ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে চট্টগ্রামে প্রথমবারের মতো কেউ আক্রান্তের ঘটনা। তিনি এখনও চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

চমেক হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রামের কর্ণফুলী উপজেলার বাসিন্দা ট্রান্সপোর্ট ব্যবসায়ী এ করোনাও আক্রান্ত ছিলেন না। ইতোমধ্যে তিনি করোনার দুই ডোজ টিকাও দিয়েছেন এরপরও তিনি ভয়ঙ্কর এ ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত হন। তবে আগে থেকেই ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ ও অ্যাজমার জটিলতা ছিল রোগীর।

মুখের এক পাশে দাঁতের ব্যথাজনিত জটিলতায় তাকে প্রথমে চিকিৎসকের কাছে নেওয়া হয়। ডাক্তারের পরামর্শে তাকে ২৫ জুলাই চট্টগ্রামের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর মুখের একপাশ ফুলে যায় তার। এ অবস্থায় নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হয়। পরে ৬ আগস্ট জানা যায় রোগী ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত। এরপর তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. সুযত পাল জানান, ব্ল্যাক ফাঙ্গাস শনাক্ত প্রথম রোগীর আজ সার্জারি করার কথা রয়েছে। দ্বিতীয় রোগীকে চট্টগ্রাম মেডিকেলে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তাকেও সার্জারি করাতে হবে। তবে সেটি রোগীর শারীরিক অবস্থার ওপর নির্ভর করবে। এছাড়া এর আগে রোগীকে কিছু ইনজেকশন ও ওষুধ দেওয়া হবে।

জেলা সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি জানান, এখনও এ বিষয়ে আমাদের কেউ জানায়নি। এমনকি চমেক হাসপাতাল থেকেও কোন তথ্য আসেনি। তবুও খবর নিচ্ছি বিষয়টি। তথ্য পেলে বিস্তারিত পরে জানাতে পারব।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •