বিশেষ প্রতিবেদক:
বাংলাদেশে আশ্রিত মিয়ানমারের বাস্তচ্যুত রোহিঙ্গা নাগরিকদের করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়া শুরু হচ্ছে আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে।

কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সকাল ১১টায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে সংক্ষিপ্ত পরিসরে এই টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করা হবে বলে  জানিয়েছেন কক্সবাজার জেলার সিভিল সার্জন মো. মাহবুবুর রহমান।

শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার (আরআরআরসি) কার্যালয়ের স্বাস্থ্য বিষয়ক সমন্বয়কারী ডা. আবু তোহা এম আর ভুঁইয়া দ্য বলেন, ‘আগামীকাল থেকে তিন দিন উখিয়া ও টেকনাফের ৩৪টি ক্যাম্পে মোট ৪৮ হাজার ৬০০ জন রোহিঙ্গা নাগরিককে করোনার টিকা দেওয়া হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘যাদের বয়স ৫৫ এবং তদূর্ধ্ব প্রথম পর্যায়ে তাদের এই টিকা দেওয়া হবে। ৩৪টি ক্যাম্পে মোট ৫৮টি টিকাকেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। প্রত্যেক কেন্দ্রে দুজন প্রশিক্ষিত টিকাদানকারী এবং তিন জন স্বেচ্ছাসেবক দায়িত্ব পালন করবেন।’

টিকাদান কেন্দ্রের কার্যক্রম তদারকির জন্য একাধিক টিম মাঠে থাকবে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়ার পর ইউএনএইচসিআর-এর সহযোগিতায় সেনাবাহিনী তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে তাদের পরিচয় তালিকাভুক্ত করে। এর ভিত্তিতেই টিকা দেওয়া হবে।’

কক্সবাজার জেলার সিভিল সার্জন ডা. মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘আগামীকাল থেকে চীনের তৈরি সিনোফার্মের টিকার প্রথম ডোজ টিকা দেওয়া হবে রোহিঙ্গাদের। পরবর্তীতে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী পর্যায়ক্রমে ক্যাম্পে আশ্রিত সব রোহিঙ্গাকে টিকার আওতায় আনা হবে।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •