আব্দুস সালাম, টেকনাফ:
টেকনাফে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় মীর কাশেম (২৫) নামক মাদক কারবারিকে আটক করেছে র‍্যাব। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ১০ হাজার ইয়াবা, একটি দেশীয় তৈরি এলজি ও দুই রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয় বলে দাবি র‍্যাবের।

আটক মীর কাশেম হোয়াইক্যং ৩ নং ওয়ার্ডের লম্বাবিল ঘােনারপাড়ার হাজী মােহাম্মদ হােসেনের ছেলে।

র‍্যাব-১৫ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক আবদুল্লাহ মােহাম্মদ শেখ সাদী জানান, কতিপয় মাদক কারবারী টেকনাফের হােয়াইক্যং ইউপিস্থ ঘােনারপাড়ার মৃত কবির আহম্মদ এর বাড়ি সংলগ্ন লম্বাবিল – ঘুনারপাড়াগামী রাস্তার কালবার্টের উপর মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট ক্রয়–বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে অবস্থানের সংবাদে অভিযানে যায়। র‍্যাবের আভিযানিক দলের উপস্থিতি টের পেয়ে ৩/৪ জন সংঘবদ্ধ অস্ত্রধারী মাদক কারবারীরা র‍্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ শুরু করে ।

তখন উক্ত আভিযানিক দলের সদস্যগন সরকারী সম্পত্তি এবং তাদের জানমালের আত্মরক্ষার লক্ষ্যে পাল্টা গুলি করলে ২/৩ জন অজ্ঞাতনামা অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী গুলি ছুড়তে ছুড়তে দৌঁড়ে পালিয়ে যায় ।

এরপর গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার মাদক কারবারী মীর কাশেমকে কালবিলম্ব না করে অতিদ্রুত চিকিৎসার জন্য উখিয়া এমএসএফ হাসাপাতালে নিয়ে যায় র‍্যাব।

পরবর্তীতে কর্তব্যরত চিকিৎসকের পরামর্শে উন্নত চিকিৎসার জন্য র‍্যাব তার নিজ ব্যবস্থাপনায় এবং নিজ খরচে উক্ত গুলিবিদ্ধ অস্ত্রধারী মাদক কারবারীকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণের ব্যবস্থা করেছে ।

এ ব্যাপারে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •