সিবিএন ডেস্ক:
ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিরুদ্ধে সামরিক হামলা চালাতে প্রস্তুত ইহুদিবাদী ইসরায়েল। এ কথা বলেছেন ইসরায়েলের যুদ্ধমন্ত্রী বেনি গান্তজ।

ওমান সাগরের উপকূলে ইসরায়েলের মালিকানাধীন একটি তেল ট্যাংকারে হামলার পর সৃষ্ট উত্তেজনার মধ্যে ইসরায়েলের যুদ্ধমন্ত্রী ইরানের ওপর হামলার হুমকি দিলেন। ট্যাংকারে হামলার জন্য ইসরায়েল, ব্রিটেন, আমেরিকা এবং রোমানিয়া ইরানকে দায়ী করেছে। ইরান এ অভিযোগ সরাসরি নাকচ করেছে। ট্যাংকারে হামলার ঘটনায় ব্রিটেন এবং রোমানিয়ার দুই ক্রু নিহত হন।

ইসরায়েলি গণমাধ্যমের পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবার (০৫ আগস্ট) বেনি গান্তজকে জিজ্ঞেস করা হয়- ইরানের বিরুদ্ধে হামলার জন্য ইসরাইল প্রস্তুত কিনা। জবাবে তিনি বলেন ‘হ্যাঁ’।

ইসরায়েলের যুদ্ধমন্ত্রী ওয়াই নেটকে ওয়েবসাইটকেও বলেন, ‘ইরানসহ কয়েকটি ফ্রন্টে যুদ্ধ করতে প্রস্তুত রয়েছে তেল আবিব। তিনি তার ভাষায় বলেন, ‘ইরান হচ্ছে একটি আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক সমস্যা; এটি ইসরায়েলের জন্য একটি চ্যালেঞ্জ। ’

এর আগে, বুধবার (০৪ আগস্ট) ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর কমান্ডার মেজর জেনারেল হোসেইন সালামি বলেন, যে সমস্ত দেশ ইরানকে হুমকি দেয় তাদের বিশেষ করে ইসরাইলকে ইরানের আত্মরক্ষা ও হামলা চালানোর সক্ষমতার বাস্তবতা বুঝতে হবে। তিনি বলেন, ‘শত্রুর কোনো ধরনের হামলা সহ্য করার নীতি ইরানের সামরিক কৌশলে নেই। ’ তিনি স্পষ্ট করে বলেন, ‘শত্রুর যেকোনো ধরনের হামলার তাৎক্ষণিক ও শক্তিশালী জবাব দেবে ইরান। ’

জেনারেল সালামি পরিষ্কার করে বলেন, ‘যেকোনো পরিস্থিতির জন্য আমরা প্রস্তুত। ’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •