মোঃ নাজিম উদ্দিন, দক্ষিণ চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে দোহাজারী হাইওয়ে থানার সামনে তল্লাসি চৌকিতে মাইক্রোবাসকে থামাতে সংকেত দেওয়ায় মোঃ রাব্বী ভুঁইয়া (২৭) নামের এক পুলিশ সদস্যকে চাপা দিয়ে মারল গাড়ির চালক। এতে গুরুতর আহত হয়েছেন মো. আরাফাত (২৮) নামের আরেক পুলিশ সদস্য।
(আজ ৫ আগষ্ট) বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার সময় কক্সবাজার হতে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামমুখী একটি হাইয়েস (চট্ট-মেট্রো-চ ১১-৫২২৫) লকডাউন না মেনে যাত্রী নিয়ে যাওয়ার সময় থানার সামনে তল্লাশি চৌকিতে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যরা গাড়িটিকে থামাতে সংকেত দেন। এতে হাইয়েসের চালক সংকেত না মেনে তাদেরকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে গাড়ির চাকাতে চাপা দিয়ে দ্রুত গতিতে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই এক পুলিশ সদস্য নিহত এবং অন্যজন গুরুতর আহত হয়।

দোহাজারি হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আবদুর রব জানান, লকডাউন কার্যকর করতে প্রতিদিনের ন্যায় চট্রগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে থানার সামনে আজ সকাল থেকে তল্লাশি চৌকি বসানো হয়। সকাল সাড়ে ১১টার সময় চট্টগ্রামমুখী একটি হাইয়েস টাসাটাসি করে যাত্রী নিয়ে যাওয়ার সময় তল্লাশি চৌকিতে দায়িত্বরত ২ পুলিশ ( কনষ্টেবল) গাড়িটিকে থামাতে বলেন। গাড়ির চালক সংকেত না মেনে উল্টো তাদেরকে গাড়ির ধাক্কা দিয়ে ফেলে গাড়ির চাকা দিয়ে পিষে দিয়ে দ্রুত গতিতে চলে যায়। এতে পুলিশ সদস্য মোঃ রাব্বী ঘটনাস্থলে মৃত্যুবরন করেন এবং গুরুতর আহত হয়ে মো. আরাফাত (২৮) হাসপাতালে ভর্তি আছেন।
নিহত রাব্বী নরসিংদী জেলার পলাশ থানার মালতী গ্রামের মোজাম্মেল হকের ছেলে। অপরদিকে গুরুতর আহত আরাফাত নোয়াখালী জেলার আবদুল মন্নানের ছেলে।
দোহাজারি হাইওয়ে থানার পুলিশ গাড়িটিকে আটক করতে পারলেও গাড়ির চালক পালিয়ে যাওয়ায় আটক করা সম্ভব হয়নি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •