মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক আপ্যায়ন ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক এডভোকেট মোহাম্মদ শামশুল হক এর শারীরিক অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় তাঁকে চট্টগ্রাম শহরের সিএইসসিআর হাসপাতালে নিয়ে সেখানে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের অধীনে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। ৫ জুলাই বৃহস্পতিবার ভোরে তাঁকে কক্সবাজার শহরের জেনারেল হাসপাতাল থেকে চট্টগ্রাম রেফার করা হয়।

কক্সবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্য এডভোকেট মীর মোশাররফ হোসেন টিটু বিষয়টি সিবিএন-কে নিশ্চিত করেছেন। তিনি আরো জানান, গত সাপ্তাহ খানেক আগে জ্বর, সর্দি, ডায়াবেটিস, কিডনি সমস্যায় ভুগলে এডভোকেট মোহাম্মদ শামশুল হক’কে কক্সবাজার শহরের ডিজিটাল হাসপাতালে ভর্তি করে সেখানে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়। তাঁর শারীরিক অবস্থার একটু উন্নতি হলে কয়েকদিন পর তিনি হাসপাতাল ত্যাগ করেন। পরে তাঁর অবস্থা আরো সংকটাপন্ন হয়ে পড়লে তাঁকে আবার কক্সবাজার শহরের জেনারেল হাসপাতালে আনা হয়। এডভোকেট শামশুল হকের দেহে অক্সিজেন স্যাচুরেশন ৮০ থেকে ৮৪ লেভেলে উঠানামা করছে। অমায়িক, স্বজ্জন, বন্ধু বৎসল এডভোকেট মোহাম্মদ শামশুল হকের জন্য অনেক চেষ্টা করেও চট্টগ্রামে আইসিইউ বা এইসডিইউ পাওয়া যায়নি। সিএইসসিআর হাসপাতালের কেবিনে রেখে তাঁকে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। তবে একাধিকবার নমুনা টেস্ট করেও তাঁর দেহে করোনা শনাক্ত করা যায়নি।

এডভোকেট মোহাম্মদ শামশুল হক ২০১২ সালের ২ এপ্রিল একজন নবীন আইনজীবী হিসাবে কক্সবাজার জেলা আইনজীবী সমিতিতে যোগ দেন। তিনি কক্সবাজার সদর উপজেলার পিএমখালী ইউনিয়নের ছনখোলা পশ্চিম পাড়ার মরহুম মোহাম্মদ আলতাজের সন্তান। বর্তমানে কক্সবাজার শহরের পূর্ব পাহাড়তলী মসজিদ রোডে বসবাস করেন।

গুরুতর অসুস্থ এডভোকেট মোহাম্মদ শামশুল হকের সুস্থতার জন্য মহান আল্লাহর অসীম রহমত ও সবার কাছে দোয়া কামনা করেছেন তাঁর চেম্বার সহকর্মী এডভোকেট মীর মোশাররফ হোসেন টিটু।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •