ছোটন কান্তি নাথ :

কক্সবাজারের চকরিয়ায় সাম্প্রতিক টানা বর্ষণ ও পার্বত্য অববাহিকার মাতামুহুরী নদীতে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের পানির কারণে সৃষ্ট ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ, গ্রামীণ অবকাঠামো, ফসলি জমিসহ ক্ষয়ক্ষতির চিত্র পরিদর্শন করেছেন কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ। তিনি আজ বুধবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত উপজেলার বিভিন্নস্থানে বন্যায় ক্ষয়ক্ষতির চিত্র সরজমিন ঘুরে ঘুরে দেখেন।

এ সময় চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ শামসুল তাবরীজ, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রাহাত উজ জামান, চকরিয়া পৌরসভার মেয়র আলমগীর চৌধুরীসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও স্থানীয় লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ শামসুল তাবরীজ জানান, সাম্প্রতিক পাহাড়ি ঢল ও অতি বৃষ্টিতে সৃষ্ট বন্যায় মাতামুহুরী নদীর বিভিন্ন স্থানে ভাঙন পরিদর্শন করেন জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশিদ। তিনি প্রথমে ছুটে যান বিএমচর ইউনিয়নের কন্যারকুম স্থানে। সেখানে পরিদর্শন করেন সাম্প্রতিক বন্যায় ভেঙে যাওয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেড়িবাঁধ। এ সময় জেলা প্রশাসক তাকে (ইউএনও) নির্দেশনা দেন, দ্রুততম সময়ের মধ্যে কন্যারকুমের বাঁধটি মেরামতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে।

ইউএনও আরও জানান, কন্যারকুম থেকে ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়ন পরিষদে যান ইউনিয়ন করোনা প্রতিরোধ কমিটি এবং সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড কমিটির সাথে মতবিনিময় সভায়। সেখানে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সরকারি বিধি প্রতিপালন, চলমান লকডাউন বাস্তবায়ন, জনগণের মাঝে সচেতনতা তৈরি করা এবং করোনা ভ্যাকসিন রেজিস্ট্রেশন ও ভ্যাকসিন প্রদান বিষয়ে দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য দেন জেলা প্রশাসক। এর পর চকরিয়া পৌরসভার ভাঙারমুখের পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রতিরক্ষা বাঁধের ভাঙন এলাকা পরিদর্শন করেন এবং এই বাঁধ স্থায়ীভাবে রক্ষায় যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন জেলা প্রশাসক।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •