বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
২০২০-২১ অর্থবছরে জুন-জুলাই পর্যন্ত সংশোধিত বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) বাস্তবায়নে ১০ মন্ত্রণালয়-বিভাগে বেহালদশা পরিলক্ষিত হয়েছে। এমনকি করোনা সংকটেও ৫ হাজার ৪২ কোটি টাকা খরচ করতে পারেনি স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ।

২০২০-২১ অর্থবছরে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের ৫৩টি প্রকল্পের আওতায় ১১ হাজার ৯৭৯ কোটি টাকা বরাদ্দ ছিল। অর্থবছরে মাত্র ৬ হাজার ৯৩৭ কোটি খরচ হয়েছে। অর্থাৎ বরাদ্দের মাত্র ৫৭ শতাংশই ব্যয় করতে পেরেছে বিভাগটি। পরিকল্পনা কমিশনের বাস্তবায়ন, পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের (আইএমইডি) প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।
আইএমইডি সচিব প্রদীপ রঞ্জন চক্রবর্তী বাংলানিউজকে বলেন, সংশোধিত এডিপি বাস্তবায়নের হার মন্ত্রীর (পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান) কাছে পাঠানো হয়েছে। তবে এখনো চূড়ান্ত হয়ে আমাদের হাতে আসেনি।

এ ছাড়া গত অর্থবছরে স্বাস্থ্যশিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগে ১৫টি প্রকল্পের আওতায় ১ হাজার ৮৮৫ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। যার মধ্যে খরচ হয়েছে ১ হাজার ৫৭৫ কোটি টাকা, যা মোট বরাদ্দের ৮৩ দশমিক ৫৫ শতাংশ। ব্যয় হয়নি ৩১০ কোটি টাকা। চলতি অর্থবছরে ১ হাজার ৯৪৬টি প্রকল্পে এডিপি বাস্তবায়নের হার ৮২ দশমিক ২১ শতাংশ, যা টাকার অংকে ১ লাখ ৭২ হাজার ৫২ কোটি টাকা। একই সময়ে মোট এডিপি বরাদ্দ ছিল ২ লাখ ৯২ হাজার ৭১ কোটি টাকা।

একই সময়ে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগসহ এডিপি বাস্তবায়নে বেহাল ১০টি মন্ত্রণালয়-বিভাগ। ৫০ শতাংশের ঘরে ঘুরপাক খাচ্ছে বাস্তবায়নের হার। ব্যয়ের দিক থেকে বেহাল অবস্থায় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় ৩৫ দশমিক ৩২ শতাংশ, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ৪১ দশমিক ৮৭ শতাংশ, পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগ ৪৭ শতাংশ, অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ ৪৮ শতাংশ, আইন ও বিচার বিভাগ ৫০ শতাংশ এডিপি বাস্তবায়ন করতে পেরেছে।

এছাড়া ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ ৫৩ দশমিক ৭১, খাদ্য মন্ত্রণালয় ৫৫ দশমিক ৭১, অর্থ বিভাগ ৫৮ দশমিক ৫৯, পররাষ্ট্র ৪৪ দশমিক ৭৪ শতাংশ বাস্তবায়ন হার।

আইএমইডির প্রতিবেদন বলছে, এডিপি বাস্তবায়নে সবার চেয়ে এগিয়ে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ। বিভাগটি মোট বরাদ্দের চেয়ে ৪ শতাংশ বেশি অর্থ খরচ করেছে। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রকল্প বাস্তবায়ন হারও ১০১ দশমিক ২৯ শতাংশ। এ ছাড়া, কৃষি মন্ত্রণালয় ৯৭ দশমিক ৫২ শতাংশ, বিদ্যুৎ বিভাগ ৮৯ দশমিক ৭১ শতাংশ, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগে ৮৮ শতাংশ, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় প্রায় ৮৯ শতাংশ, দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় ৮৯ শতাংশ, বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগ ৯৭ শতাংশ, পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় প্রায় ৮৭ শতাংশ, বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয় ৮৫ শতাংশ এবং সেতু বিভাগ প্রায় ৮৪ শতাংশ এডিপি বাস্তবায়ন করেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •