জাহাঙ্গীর আলম কাজল,নাইক্ষ্যংছড়ি:
নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার সদর ইউনিয়ন ও ঘুমধুম ইউনিয়নসহ বিভিন্ন এলাকা গত কয়েক দিন ধরে বন্যার পানিতে ভাসছিল। করোনা এবং বন্যা এই দুই মিলে বন্যা কবলিত এলাকার মানুষের দুর্দশার শেষ নেই।
প্রবল বর্ষণে পাহাড়ি ঢলের পানিতে ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা পরিষদের মানবিক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক মো: শফিউল্লাহ।

বন্যাকবলিত এলাকা পরিস্থিতি সরেজমিন পরিদর্শন করেন এবং পানিবন্দি মানুষের সহায়তায় তাৎক্ষণিক বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন, এবং দ্রত সময়ের মধ্যে উপজেলা পরিষদের বরাদ্দ কৃত ত্রান এবং নিজ থেকে আর্থিক সাহায্য ঘরে ঘরে পাঠিয়েছেন। বিশেষ প্রয়োজনে যোগাযোগ করার অনুরোধ করেছেন।

এ সম্পর্কে উপজেলা চেয়ারম্যান বলেন, শুরু থেকেই অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে চেষ্টা করে যাচ্ছি । নাইক্ষ্যংছড়িতে বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ রুপ নিয়েছে এবং সেই সাথে আছে করোনার প্রকোপ। এই অবস্থা বিবেচনা করে আমরা বন্যাকবলিত অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। কিন্তু আমার একার পক্ষে প্রত্যেক বন্যা কবলিত এলাকায় ত্রাণ সাহায্য দেয়া অনেকটা অসম্ভব। তাই আমি সবাইকে আহ্বান জানাতে চাই, আপনারা নিজ নিজ অবস্থান থেকে এগিয়ে আসুন সহযোগিতা করুন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •