ডাঃ মোহাম্মদ শাহজাহান নাজির:
বিশেষজ্ঞদের মতে, সংক্রমণ যখন সমাজে দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়ে, তখন ধরেই নিতে হবে সবাই কন্টাক্ট। আজকে ঈদগড়ে যদি ৪১ বছরের স্থানীয় জনপ্রতিনিধি মারা যায়, কিংবা কুতুবদিয়া যখন রোগী মারা যায়, প্রতিদিনের সংক্রমণের হার ৩০%-৪০% হয়, তখন চিন্তা করা দরকার কিভাবে সীমিত সম্পদে
১।অধিক জীবন রক্ষা করা যায়,
২। মরবিডিটি কমানোর ব্যবস্থা যায়।
আর এজন্য দরকার কমিউনিটি এংগেসডমেন্ট বা ইনভলভমেন্ট। তাই সমাজের স্বেচ্ছাসেবার মানসিকতায় বিশ্বাসী তরুণ- তরুণীরাদের সামনে দিয়ে সর্বস্তরের জনগণ কে এগিয়ে আসতে হবে। প্রতিটি ওয়ার্ড পর্যায়ে ইমার্জেন্সি বেসিক লাইফ সাপোর্ট এর ব্যবস্থা করা দরকার।
এ লক্ষ কে সামনে রেখে ঈদগড়, খুটাখালী, চৌফলদন্ডী ও নবগঠিত ঈদগাহ উপজেলার ৫ টি ইউনিয়ন মিলে গঠন করা হলো “ঈদগাহ অক্সিজেন ব্যাংক ” নামে স্বেচ্ছাসেবী গ্রুপ।
যাদের কাজ হচ্ছে,
১। প্রতিদিনের পজিটিভ লিস্ট থেকে ৪০ উর্ধ্ব বয়সী রোগীদের মধ্যে যাদের বিভিন্ন রোগ আগে থেকে বিদ্যমান, আর যেকোনো বয়সের গর্ভবতী মহিলাদের মধ্যে যারা ৪ মাসের বেশী অন্তঃসত্ত্বা। তাদেরকে আগে থেকে চিহ্নিত করে হাসপাতাল আইসোলেশনের জন্য মোটিভেশান করা।
২। আর যারা ইতিমধ্যে মাঝারী ও মারাত্মক উপসর্গ হয়েছে, তাদের অক্সিজেন সহ, দ্রুততম সময়ে হাসপাতালে পৌঁছানো।
নিচের রোগীটি গ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চলের যার হাসপাতালে যেতে কমপক্ষে ১/২ ঘন্টা সময় লাগবে, তাকে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হলো।
#স্বেচ্ছাসেবী দের আরেকটি কাজ হবে, কম সময়ে অধিক মানুষ কে টিকার আওতায় আনার জন্য টিকাদান কর্মসূচি তে সহায়তা।

ডাঃ মোহাম্মদ শাহজাহান নাজির
সহকারী অধ্যাপক
সংক্রামক রোগ ও ক্লিনিক্যাল ট্রপিক্যাল মেডিসিন

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •