সিবিএন ডেস্ক:
মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে গত ২৩ জুলাই থেকে চলছে সারা দেশে কঠোর বিধি-নিষেধ (লকডাউন)।

করোনা সংক্রমণরোধে সরকার ঘোষিত এ বিধি-নিষেধ ৫ আগস্ট থেকে বাড়িয়ে ১০ আগস্ট পর্যন্ত করা হয়েছে।

বিধি নিষেধের নিয়মানুযায়ী, গত ২৫ জুলাই থেকে সকাল ১০টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত ব্যাংকের লেনদেন হয়।

করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় ব্যাংকিং লেনদেনের সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে। কিন্তু দিনের সংখ্যা কমানো হয়েছে। সেই কারণে বুধবার (৪ আগস্ট) সব ব্যাংক বন্ধ থাকবে।

ব্যাংকের মতো আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো বুধবার বন্ধ থাকবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী একই কারণে চলতি মাসের প্রথম দিন গত রোববার (১ আগস্ট) ব্যাংক বন্ধ ছিল।

গত ২৮ জুলাই বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব অফ-সাইট সুপারভিশন নতুন নির্দেশনা জারি করে।

নির্দেশনায় বলা হয়, ২, ৩ ও ৫ আগস্ট সকাল ১০টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত ব্যাংকে লেনদেন হবে। অভ্যন্তরীণ সমন্বয়ের জন্য বিকেল ৪টা পর্যন্ত ব্যাংক খোলা রাখা যাবে। ১ ও ৪ আগস্ট ব্যাংক বন্ধ থাকবে।

আগামী বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) ফের সকাল ১০টা থেকে আড়াইটা পর্যন্ত ব্যাংকে লেনদেন চলবে। ব্যাংকের আনুষাঙ্গিক কার্যক্রম শেষে করতে ৪টা পর্যন্ত খোলা রাখা যাবে।

বুধবার (২৮ জুলাই) এ বিষয়ে একটি সার্কুলার জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংকের অফসাইট সুপার ভিশন বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মো. আনোয়ারুল ইসলাম।

সার্কুলারটি দেশে কার্যরত সব তফসিলি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার (সিইও) কাছে পাঠানো হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •