মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

হিমছড়ি পুলিশ ফাঁড়ি সংলগ্ন সড়কে কক্সবাজার দক্ষিণ বন বিভাগের একটি জীপ দুর্ঘটনায় পতিত হয়ে ৪ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে কক্সবাজার সদর রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তার সমীর রঞ্জন সাহা’র বাম চোখটি সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে গেছে। রোববার ১ আগস্ট বন বিভাগের জীপ গাড়ীটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে হিমছড়ি পুলিশ ফাঁড়ি সংলগ্ন রাস্তার পাশে গাছের সাথে ধাক্কা লেগে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

গত রোববার রামু’র ইউএনও, রামু’র সহকারী কমিশনার (ভুমি), বন বিভাগ, ফায়ার সার্ভিস, আনসার, স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ও সিপিজি সদস্যদের সমন্বয়ে রামু উপজেলার হিমছড়ি এলাকার ৩টি স্পট যথাক্রমে তালতলী ছড়া, হেফজখানা ও মাঙ্গালাপাড়াতে ঝুঁকিপূর্নভাবে পাহাড়ে বসবাসকারীদের নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেয়ার জন্য অভিযান চালানো হয়। অভিযানের পর স্থানীয় অসহায়দের মাঝে ত্রান বিতরণ শেষে ফেরার পথে বন বিভাগের জীপ গাড়ীটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে এই দুর্ঘটনায় পতিত হয়।

দুর্ঘটনায় কক্সবাজার সদর রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা সমীর রঞ্জন সাহা, ফরেস্টার হুমায়ূন কবির, গাড়ীচালক তোফায়েল আহমদ ও বাগানমালি আহত হয়। গুরুতর আহত রেঞ্জ অফিসার সমীর রঞ্জন সাহাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে সেখানে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। তিনি বাম চোখ, বাম চোয়াল ও কপালে মারাত্মকভাবে আঘাতপ্রাপ্ত হন। তার বাম চোখটি সম্পূর্ন নষ্ট হয়ে যায়। চিকিৎসকেরা জানান, তাঁর বাম চোখটি কোনোভাবে আর রিকভার করা সম্ভব হবে না। আহতদের মধ্যে অপর ২ জন কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •