মিজবাউল হক ,চকরিয়া :

নদীতে বাঁধ সৃষ্টি করে পানির প্রবাহ সংকুচিত করে কোনদিন বন্যা মুক্ত থাকা যাবে না। মাতামুহুরী নদীর সাথে সংযুক্ত ছড়াখাল ও বদ্ধ জলমহালের স্লুইসগেট গুলো উন্মুক্ত করে দিতে হবে। পরিকল্পিতভাবে নদীতে ক্যানেল তৈরী করা হলে চকরিয়া উপজেলাবাসী বন্যা থেকে রক্ষা পাবে।

রবিবার পহেলা আগষ্ট বিকাল তিনটার দিকে ডুলাহাজারা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের পাগলিরবিল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে খাদ্য সহায়তা দেয়ার সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রেজাউল করিম এসব কথা বলেন। এসময় তিন শতাধিক নারী-পুরুষের মাঝে খাদ্য সহায়তা তুলে দেন।

তিনি আরও বলেন, কিছু ভূমিদস্যূ চকরিয়ার ছড়াখালগুলো দখল করে মাছ চাষ করছে। বাঁধ দেয়ার কারণে স্বাভাবিক পানি চলাচল করতে পারছে না। ফলে অল্প বৃষ্টিতে বন্যার পানি সয়লাব হয়ে যাচ্ছে পুরো চকরিয়া। দীর্ঘ মেয়াদি সুফল পেতে হলে ছড়াখাল গুলো দখল মুক্ত করতে হবে।

রেজাউল করিম বলেন, সরকার করোনাকালে অসহায় মানুষের পাশে রয়েছেন। সবসময় খোঁজ খবর নিচ্ছেন। দু:খ কষ্ট লাগবে সবধরণের সহায়তা দিচ্ছেন জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দুস্থদের পাশে থাকার জন্য নেতাকর্মিদের নির্দেশ দেন। করোনাকালে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দেন তিনি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোক্তার আহমদ চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহনেওয়াজ তালুকদার, সাংগঠনিক সম্পাদক মিজবাউল হক, উপজেলা আ.লীগ নেতা ডা. ফরিদুল হক, ইউনিয়ন আ.লীগের সহ-সভাপতি শাহ আলম, আবু ছালাম, চেয়ারম্যান প্রার্থী কলিম উল্লাহ কলিম, ইউপি সদস্য সোলায়মান, মনজুর আলম, কাইছারুল হক বাবুল, মাইনুদ্দিন, জাকের হোসেন, কামাল উদ্দিন, আজিজুর রহমান প্রমূখ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •