এম.এ আজিজ রাসেল :
করোনায় একের পর এক লকডাউনে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পর্যটন শিল্প। এই শিল্পের সাথে জড়িত হোটেল—মোটেল গেষ্ট হাউসের কর্মকর্তা—কর্মচারিরা কর্ম হারিয়ে কষ্টে দিনাতিপাত করছে। তাই দুর্দিনে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা। কক্সবাজারের সন্তান স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের আন্তরিক প্রচেষ্টায় তাদের জন্য ৪০ লক্ষ টাকা প্রধানমন্ত্রী বিশেষ অনুদান দিয়েছেন।
কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে এই বিশেষ অনুদান বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

রোববার (০১ আগষ্ট) সকাল ১১টায় পর্যটনকর্মীদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ অনুদান বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ।

বিতরণকালে জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ বলেন, ‘চলমান কঠোর লকডাউনে নানান শ্রেণী পেশার মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। তাই এসব মানুষের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার বিতরণ কার্যক্রম চলছে। পর্যাপ্ত খাদ্য মজুদ আছে। লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্ত সবাই পর্যায়ক্রমে প্রধানমন্ত্রীর উপহার খাদ্য সামগ্রী পাবে। এছাড়া কারও ঘরে যদি খাবার না থাকে হেল্পলাইন ৩৩৩ নাম্বারে কল দিলে স্বেচ্ছাসেবকেরা খাবার পৌঁছে দেবে।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) জাহিদ ইকবালের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাড. ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান ও হোটেল মোটেল অফিসার্স এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কলিম উল্লাহ কলিম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর আলম, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. রনজিত দাশ ও জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এস,এম সাদ্দাম হোসেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •