সিবিএন ডেস্ক:
আলোচিত নারী নেত্রী হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে গুলশান থানায় পৃথক দুইটি মামলা হয়েছে। আজ সন্ধ্যায় র‌্যাব বাদী হয়ে মামলা দুটি করে।

এরমধ্যে একটি বিশেষ ক্ষমতা আইনে ও অপরটি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে। বিশেষ ক্ষমতা আইনে তিনটি ধারা যুক্ত করা হয়েছে। সেগুলো মধ্যে মাদক আইন, বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইন ও বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন আইনের ধারা দেয়া হয়েছে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ডিএমপির গুলশান বিভাগের উপ পুলিশ কমিশনার (ডিসি) সুদীপ্ত কুমার চক্রবর্তী ঢাকাটাইমসকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ‘র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে র‌্যাব বাদী হয়ে দুটি মামলা করেছে। আজ সন্ধ্যায় মামলা দুটি রুজু হয়।’

এর আগে বিকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক উপ-কমিটি থেকে সদ্য পদ হারানো হেলেনা জাহাঙ্গীরকে গুলশান থানায় হস্তান্তর করা হয়। র‌্যাব সদরদপ্তর থেকে তাকে একটি গাড়িতে করে গুলশান থানায় নেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে আটটা থেকে গুলশানে হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাড়িতে অভিযান চালায় র‌্যাব। চার ঘণ্টার অভিযান শেষে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে আটক করে র‌্যাব সদরদপ্তরে নেয়া হয়। হেলেনার বাসা থেকে বিদেশি মদ, ক্যাসিনো সরঞ্জাম, চাকু, ওয়াকিটকিসহ বিভিন্ন অবৈধ সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানায় র‌্যাব। এরপর রাত দেড়টা থেকে চারটা পর্যন্ত রাজধানীর মিরপুর-১১ নম্বরের এ ব্লকের তিন নম্বর রোডে হেলেনা জাহাঙ্গীরের জয়যাত্রা টেলিভিশনের কার্যালয়ে অভিযানে যায় র‌্যাব। অভিযানে বিভিন্ন অবৈধ সরঞ্জাম জব্দ করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •