শেফাইল উদ্দিন, ঈদগাঁও
কক্সবাজার জেলার ঈদগাঁওকে পৃথক ‘উপজেলা’ অনুমোদনের সংবাদে মিষ্টি বিতরণ করা হয়েছে। বয়ে যাচ্ছে আনন্দের বন্যা।

উপজেলা ঘোষণার সংবাদ শোনে ঈদগাঁও প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের মাঝে মিষ্টি বিতরণ করা হয়।

ঈদগাঁও উপজেলার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও তরুণ শিল্পীপতি হুমায়ূন করিম সিকদার সর্ব প্রথম মিষ্টি নিয়ে যান। আনন্দ ভাগাভাগি করেন।

নতুন এই সিদ্ধান্তে প্রধানমন্ত্রী, এমপি সাইমুম সরওয়ার কমল,স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দিন আহমেদ, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে. কর্নেল (অব.) ফোরকান আহমেদ ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মাষ্টার নুরুল আজিমসহ যারা নানাভাবে সম্পৃক্ত ছিল, সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন হুমায়ূন করিম সিকদার।

সোমবার (২৬ জুলাই) প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটি (নিকার)’র ১১৭ তম সভায় ঈদগাঁওকে উপজেলা হিসেবে অনুমোদন দেওয়া হয়।

মন্ত্রীপরিষদের সভাকক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে নিকার’র ভার্চুয়াল এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভার কার্যতালিকায় দেশের বিভিন্ন এলাকার ৮ টি গুরুত্বপূর্ণ এজেন্ডার মধ্যে ঈদগাহ’কে উপজেলায় রূপান্তরের বিষয়টি স্থানীয় সরকার বিভাগের প্রস্তাবনায় এক নম্বরে রাখা হয়েছিল।

ঈদগাঁও উপজেলার ইসলামপুর, ইসলামাবাদ, জালালাবাদ, পোকখালী ও ঈদগাঁও এই পাঁচটি ইউনিয়ন অন্তর্ভুক্ত থাকবে। যেখানে প্রায় দেড় লক্ষ জনসাধারণ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •