আবদুল মালেক সিকদার, রামু:
গভীর রাতে রামু থানার সামনে অধীর কান্তি দত্তের বাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় এমপি সাইমুম সরওয়ার কমল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
এই সময় ভুক্তভোগীদের কথা শ্রবণ করে ন্যায় বিচারের আশ্বাস প্রদান করেছেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন রামু থানার অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোছেন, এস আই কামরুল ইসলাম, এস আই আজাদ, রামু ফতেখাঁরকুল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম,রামু উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি বাবু তপন মল্লিক,রামু উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক বাবু নীতিশ বড়ুয়া, বাংলাদেশ পুজা উদযাপন পরিষদের রামু শাখার যুগ্ম আহবায়ক বাবু প্রকাশ সিকদার, রামু চৌমুহনী বানিক সমিতির সদস্য মোহাম্মদ আজিজুল হক( আজিজ), রামু উপজেলা তাঁতী লীগের লীগের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক আহাম্মদ, সনাতন ধর্মীয় নেতা পাইলট চক্রবর্তী সুমন,এমপির ব্যক্তিগত সহকারি আবু বক্কর সিদ্দিক।

জানাযায়, রামু থানার সামনে ১০ গজের ভিতরে অধীর কান্তি দত্তের বাড়ি দখল করার উদ্দেশ্য দেশীয় তৈরি অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে পরিকল্পিত ভাবে হামলা করেছে সন্ত্রাসীরা। ঘটনাস্থল থেকে দেশীয় তৈরি অস্ত্রশস্ত্রসহ ৪ জন হামলাকারী কে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে ২৩ জুলাই (শুক্রবার) রাত ৪ টা ১৫ মিনিটের সময়।

আটককৃতরা হল, ফতেখাঁরকুল ইউনিয়নের হাজারী কুল এলাকার মৃত প্রিয়দর্শী বড়ুয়ার ছেলে সৌমিক বড়ুয়া, অনিক বড়ুয়া,একই এলাকার রতন বড়ুয়ার ছেলে ইমন বড়ুয়া ,রাজারকুল ইউনিয়নের পাঞ্জেখানা ঘোনার পাড়া এলাকার মকতুল হোসেনের ছেলে ফরিদুল আলম।

এ ব্যাপারে অধীর কান্তি দত্ত বাদী হয়ে ৪ জন কে অভিযুক্ত করে ৩০/৩৫ কে অজ্ঞাত নামা আসামি করে মামলা করেছে রামু থানায়। রামু থানার মামলা নম্বর ৭০/২০২১।

মামলার আর্জিতে  বাদী অধীর কান্তি দত্ত জানান, দীর্ঘ দিন ধরে হামলাকারীরা আমার বসত বাড়ি দখল করার জন্য হুমকি দিয়ে আসছিল। ঘটনার দিন সৌমিক বড়ুয়া অনিক বড়ুয়ার নেতৃত্বে ইমন বড়ুয়া, ফরিদুল আলমসহ অজ্ঞাত নামা ৩০/৩৫ জন সন্ত্রাসী দেশীয় তৈরি অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে পরিকল্পিত ভাবে আমার বসত ভিটার বাউন্ডারির প্লেন সিটের দরজায় লাথি ও খন্তা দিয়ে উপড়ে ফেলে দেয়। আমার বসত বাড়িতে অনধিকার প্রবেশ করে বসত ঘরের প্রতিটি দরজায় তালা লাগিয়ে দিয়ে আমাদের কে আমার বসত ঘরের ভিতরে জিম্মি করে রাখে। এবং জায়গা দখল উদ্দেশ্য টিন ও সুপারি গাছের খুটি দিয়ে ঘেরা দেয়। সন্ত্রাসীদের শোর চিৎকারে ও আমাদের ঘুম ভাঙ্গিয়া গেলে আমরা স্বপরিবারে ঘর থেকে বাহির হওয়ার চেষ্টা করলে হামলাকারীরা বাহির হতে কিরিচ দিয়া দরজার ফাঁক দিয়া ভাতিজা নিউটন কান্তি দত্ত কে আাঘাত করে। এতে নিউটনের পায়ে গুরুতর রক্তাক্ত জখম হয়,আমার গোডাউনের ঘরে অনধিকার প্রবেশ করে আমার ছেলে মিঠুন কান্তি দত্ত কে এলোপাতাড়ি ভাবে কিল, ঘুষি মেরে শরীরের বিভিন্ন স্থানে ফুলা থেঁতলানো জখম করে ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয়। আমার গোডাউনের ডেকোরেশনের প্রায় ২০ হাজার টাকার কাপড় চুরি করে নিয়ে যায়, এবং ভাঙচুর চালিয়ে ১৫ হাজার টাকার ক্ষতিসাধন করে । আমাদের বাড়ি পুড়িয়ে দেবে, আমাদেরকে অপহরণ পূর্বক হত্যা করে লাশ গুম করবে বলে প্রাণ নাশের হুমকি দেয়।

খবর পেয়ে রামু থানার ওসি আনোয়ার হোছেন, এস আই আজাদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এবং বাড়িতে হামলাকারীদের লাগানো তালা ভেঙ্গে পরিবারে সকল সদস্য ও আহতদের কে উদ্ধার করে। পরে এলাকাবাসী আহতদের কে রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করে।
এ ব্যাপারে রামু থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি আনোয়ার হোছেন জানান, হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আটককৃত ৪ জন কে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য এবং নিজেদের নিরাপত্তা চেয়ে প্রশাসনের সহযোগিতা চান বাদী অধীর কান্তি দত্ত ও ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •