আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
পেগাসাস স্পাইওয়্যারের বিরুদ্ধে সমগ্র বিশ্বে নজরদারি চালানোর যে অভিযোগ উঠেছে তা তদন্ত করতে কমিশন গঠন করেছে ইসরাইল। বৃহস্পতিবার ইসরাইলের পার্লামেন্টের ফরেন অ্যাফেয়ার্স ও ডিফেন্স কমিটির প্রধান এই ঘোষণা দেন। সূত্র, আল জাজিরা।

ইসরাইলের নজরদারি প্রতিষ্ঠান এনএসও কর্তৃক তৈরি পেগাসাস সফটওয়্যার দিয়ে সমগ্র বিশ্বে প্রধানমন্ত্রী, সাংবাদিক, মানবাধিকারকর্মী, রাজনীতিবীদ সহ গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের ফোনে আড়ি পাতা হয়েছে বলে সম্প্রতি অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি নিয়ে এখন পুরো বিশ্বে তোলপাড় চলছে। তবে এনএসও কর্তৃপক্ষ বলছে, বিষয়টি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

ফাঁস হওয়া একটি তথ্যে ৫০ হাজার ফোন নাম্বারের একটি তালিকা পাওয়া গিয়েছে। এই তালিকায় বিশ্বের অনেক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির ফোন নাম্বার রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, এই নাম্বারগুলোতে নজরদারি চালানো হয়েছে।

ইসরাইলের আইনপ্রণেতা র‌্যাম বেন বারাক যিনি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের সাবেক উপপ্রধান তিনি বলেছেন, ‘অভিযোগ তদন্ত করে দেখার জন্য একটি রিভিউ কমিশন গঠন করা হয়েছে। তদন্ত শেষ হওয়ার পর আমরা দেখব কোনো সংশোধনের প্রয়োজন আছে কিনা?’

এনএসও এর প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও শালেভ হুলিও আর্মি রেডিওকে বলেছেন, ‘ঘটনার তদন্ত হলে তারা খুশি হবেন। তাহলে বিষয়টি পরিষ্কার হবে। এনএসও এর বিরুদ্ধে যে অভিযোগ আনা হয়েছে তার উদ্দেশ্য হচ্ছে ইসরাইলের পুরো সাইবার ইন্ডাস্ট্রির গায়ে কলঙ্ক লাগানো।’

কোনো ফোনে একবার পেগাসাস স্পাইওয়্যারটি ইনস্টল হলে সেই হ্যান্ডসেটটি দখল করে নেয় তা। ফলে ফোন খোলা না থাকলেও ব্যবহারকারীর অজান্তে সব তথ্য চলে যায় স্পাইওয়্যারটির কাছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •