আলাউদ্দিন, লোহাগাড়া প্রতিনিধি :

লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের তেওয়ারী হাটে জমে উঠেছে জমে উঠেছে কোরবানির পশু কেনা-বেচা। তবে এবারের হাটে ছোট ও মাঝারি ধরনের পশুর চাহিদা বেশি।

রবিবার ( ১৮ জুলাই ) বিকালে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, হাটে এখন পর্যন্ত সেসব ক্রেতা আসছেন তাদের অধিকাংশের পছন্দ মাঝারি ও ছোট আকারের গরু।

দরবেশহাটের খামারী মোরশদুল আলম জানান, হাটে ৯ টি বড় গরু নিয়ে এসেছিলাম। কিন্তু এখানে বড় গরুর চাহিদা কম। ক্রেতারা মাঝারি ও ছোট গরুর দিকে নজর দিচ্ছে।

পুটিবিলা থেকে গরু কিনতে আসা নাজিম উদ্দিন বলেন, গত বারে বড় গরু নিয়ে কোরবানি দিয়ে ছিলাম। কিন্তু করোনার কারনে এ বছর বাজেট কম। তাই মাঝারি দেখে একটি কিনে নিয়ে যাবো ভাবতেছি।

হাটের ইজারাদার রাশেদুল ইসলাম জানান, আমাদের পক্ষ থেকে হাটে সার্বক্ষণিক স্বাস্থ্যবিধি মানাসহ জনসচেতনামূলক বার্তা প্রচার করা হচ্ছে।

লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ জাকের হোসাইন মাহমুদ জানান , কোরবানির পশুর হাটগুলোতে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

প্রতিটি হাটের ওপর সার্বক্ষণিক নজরদারি করা হচ্ছে। কেউ যেন কোনো প্রকার অপ্রতীকির ঘটনা ঘটাতে না পারে সেদিকে বিশেষ দৃষ্টি রয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান হাবিব জিতু বলেন, এবারের পশুর হাট বাজার স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরিচালনা করতে আমরা নির্দেশ দিয়েছি। এছাড়া ক্রেতাদের সুবিধার জন্য অনলাইনেও থাকছে পশু ক্রয়-বিক্রয়ের ব্যবস্থা রয়েছে ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •