মোঃ জয়নাল আবেদীন টুক্কু:
নাইক্ষ্যংছড়ি বাজার সংলগ্ন সড়কের অবস্থা এতটাই শোচনীয় রূপ নিয়েছে যে সামান্য বৃষ্টিতেই সড়কে পানি জমে যায়। হঠাৎ কেউ এটিকে দেখলে মনে হবে সড়ক নয় যেন মিনি পুকুর।

খানাখন্দে ভরা ও ভাঙাচোরা এই সড়কে চলাচলরত যানবাহন, চালক, যাত্রী, পথচারীদের দুর্ভোগের শেষ নেই। সড়কটির কয়েকটি স্থানে বড়বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। সামান্য বৃষ্টির হলে সেখানে পানি জমে পুকুরে পরিণত হয়। মৃত্যু ফাঁদে এভাবে প্রায় এক মাস ধরে চলাচল করছে যাত্রীবাহী ছোট বড় যানবাহন।

নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার একমাত্র প্রধান এ সড়কটি চলিত অর্থ বছরে নামমাত্র সংস্কারের কাজ করেন সড়ক ও জনপদ বিভাগ। এ গুরুত্বপূর্ণ সড়কটির সংষ্কার কাজে অনিয়ম হওয়ায় কার্পের্টিং ও খোয়া উঠে বালু মাটি বের হয়ে সৃষ্টি হয়েছে একেকটি বড় বড় গর্তের। দেখে মনে হয় এটি যেন সড়ক না মিনি পুকুর। উপজেলা থেকে ১০০ গজের মধ্যেই এ সড়ক কারও চোখে পড়ে না। অথচ ইউএনও, উপজেলা চেয়ারম্যান, সদর ইউপির চেয়ারম্যানসহ বড় বড় নেতারা উপজেলা সদরে অবস্থান করলেও দেখেও না দেখার ভান করে থাকেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে সদর ইউপির চেয়ারম্যান নুরুল আবছার ইমন এ প্রতিবেদককে জানান প্রধান এই সড়কটি সড়ক ও জনপদ বিভাগের হওয়ায় আমি কাজ করতে পারছিনা। তবে এ সড়ক যত সম্ভব দ্রুত নতুন করে নির্মাণ কাজ শুরু হবে। নাইক্ষ্যংছড়ি বাজার পরিচালনা কমিটির সম্পাদক ডাঃ ফরিদ আহমেদ বলেন, বৃষ্টির পানিতে এসব গর্তে পানি জমে থাকায় দুর্ভোগের পাশাপাশি প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার কবলে পড়েছেন যানবাহন ও সাধারণ মানুষ। বাজারের ব্যবসায়ীরা এ সড়কটি দ্রুত সংষ্কার করতে সংশ্লিষ্টদের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •