সিবিএন ডেস্ক:

ঢাকা-চট্টগ্রাম সহ দেশে অনেক স্থানে কোরবানীর পশুর হাট শুরু হয়ে গেলেও কক্সবাজার শহরে শুরু হবে ১৭ জুলাই থেকে। করোনা সংক্রমণ রোধে এইবার কক্সবাজার পৌরসভার কোরবানীর পশুর হাট সংক্ষিপ্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইজারাদার। ১৭ জুলাই শুধু মাত্র ৪ দিন বসবে কক্সবাজার শহরের একমাত্র কোরবানীর পশুর হাট। এই হাটে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে বলে জানিয়েছেন ইজারাদার।

কক্সবাজার পৌরসভার কোরবানীর পশুর হাটের ইজারাদার মোঃ আরাফাত জানিয়েছেন, ১২ জুলাই থেকে শহরের ঐতিহ্যবাহী খুরুশকূল রোড ও পিটি স্কুল মাঠে কোরবানীর পশুর হাট বসানোর অনুমতি রয়েছে। কিন্তু করোনার সংক্রামন রোধে তা আগামী ১৭ জুলাই থেকে শুধু মাত্র ৪দিনের জন্য এই হাট বসানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। করোনার সংক্রামন রোধে ক্রতা ও বিক্রেতাদের দূরত্ব রাখতে খুরুশকূল রোডে ও পিটি স্কুল মাঠে দুই ভাগে কোরবানীর পশুর হাট বসানো হবে।

ইজারাদার আরো জানিয়েছেন, করোনা ভাইরাসের সংক্রমন রোধে এইবার কোরবানীর পশুর হাটে ক্রেতা-বিক্রেতাকে অবশ্যই মাক্স ব্যবহার করতে হবে। মাক্স ছাড়া কাউকেই হাটে প্রবেশ করতে দেয়া হবেনা। হাটে প্রবেশ ও হাট থেকে বের হওয়ার সময় অবশ্যই জীবানুনাশক দিয়ে হাত ধুতে হবে। স্বাস্খ্য বিধি মেনে ক্রেতা বিক্রেতা নুন্যতম ৩ফিট দ্রুরত্ব বজায় রাখতর হবে।
অকারনে কাউকেই পশুর হাটে না আসার জন্য তিনি অনুরোধ করেন।

একই সাথে পরিবারের বয়ষ্ক ও শিশুদের সুরক্ষার জন্য তাদের পশু হাটে না আনতে বলা হয়েছে।

একটি কোরবানীর পশু কিনতে ১ থেকে ২ জনের বেশি মানুষ হাটে আসতে ইজারাদারের পক্ষে অনুরোধ করা হয়েছে।

কোরবানী হাটে ক্রেতা ও বিক্রেতাদের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা এবং জাল টাকা সনাক্তে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।