অনলাইন ডেস্ক: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কোথাও এখন পর্যন্ত অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। তবে আর্জেন্টিনা সমর্থকরা বিভিন্ন স্থানে বাজি পটকা ফুটিয়ে আনন্দ-উল্লাস করেছে।

খেলা নিয়ে অপ্রীতিকর ঘটনার আশঙ্কায় জেলা পুলিশ ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করে। রোববার (১১ জুলাই) ভোর ৪ টা থেকে ১১৬ টি ভিটে পুলিশের টহল শুরু হয়।

এরআগে সমর্থকদের সতর্ক করতে মাইকিং করা হয়। গতকাল (১০ জুলাই) শনিবার সকাল থেকে শহরের বিভিন্ন স্থানে সদর মডেল থানা পুলিশের উদ্যোগে এ মাইকিং করা হয়। মাইকিংয়ে প্রজেক্টরের মাধ্যমে বড় পর্দায় উন্মুক্তস্থানে-হাটবাজার, রাস্তার মোড়, হোটেল-রেষ্টুরেন্টে, চায়ের দোকান, পাড়া মহল্লা ঘরবাড়িতে বন্ধুবান্ধব একত্রিত হয়ে গনজমায়েত করে ফুটবল খেলা দেখা নিষেধ করা হয় এবং খেলা শেষে আনন্দ মিছিল, পটকা-আতশবাজি ফুটানো সম্পূর্ণ নিষেধ করা হয়।

গত ৬ জুলাই বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সাদেকপুর ইউনিয়নের দামচাইল বাজারে নোয়াব মিয়া (৬০) নামে এক ব্যক্তিকে মারধর করেন আর্জেন্টিনা সমর্থক জীবন ও তার সহযোগীরা। ওইদিন সকালে নোয়াব মিয়ার ভাতিজা ব্রাজিল সমর্থক রেজাউলের সাথে খেলা নিয়ে জীবনের বাকবিতন্ডা ও হাতাহাতি হয়। এর জেরে জীবন ও তার সহযোগীরা রেজাউলের চাচাকে একা পেয়ে মারধর করেন।

এ ঘটনার প্রতিবাদে ওইদিন রাতেই জীবনের সহযোগী তিন আর্জেন্টিনা সমর্থককে মারধর করেন ব্রাজিল সমর্থকরা। একারণে অপ্রীতিকর ঘটনার আশঙ্কায় খেলা ঘিরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় বাড়তি পদক্ষেপ নেয় পুলিশ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •