নিজস্ব প্রতিবেদক :
চকরিয়া পৌরসভার ভাঙারমুখস্থ বড়ুয়া পাড়ার চকরিয়া কেন্দ্রীয় জেতবন বৌদ্ধ বিহারের জমি ও কমিটি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে চলমান বিরোধ নিষ্পত্তির উদ্যোগ নিয়েছেন কক্সবাজার-১ আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম এমএ।
শনিবার (১০ জুলাই) বিকেলে এমপি জাফর আলম উপরোক্ত সমস্যার সমাধানকল্পে বড়ুয়া পাড়ায় যান। এ সময় তিনি বড়ুয়া সম্প্রদায়ের স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, সমাজপতি, কেন্দ্রীয় জেতবন বৌদ্ধ বিহারের সাবেক ও বর্তমান কমিটির নেতৃবৃন্দের সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ বৈঠক করেন। এ সময় এমপি জাফর আলম সিদ্ধান্ত দেন আগামী বৈঠক থেকে চুড়ান্তভাবে বিরোধ নিষ্পত্তি করে দেওয়ার।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জুয়েল ইসলাম, অপারেশন অফিসার (এসআই) রাজীব সরকার, বড়ুয়া পাড়ার সমাজপতি ব্যোধি মোহন বড়ুয়া, শাবুল বড়ুয়া, প্রিয়দর্শী বড়ুয়া, ধর্মদর্শী বড়ুয়া, চকরিয়া কেন্দ্রীয় জেতবন বৌদ্ধ বিহার পরিচালনা কমিটির উপদেষ্টা মতিলাল বড়ুয়া, বর্তমান পরিচালনা কমিটির সভাপতি প্রভাত কুমার বড়ুয়া, সাধারণ সম্পাদক অমিয় বড়ুয়া, অর্থসম্পাদক রণধীর বড়ুয়া, সাবেক কমিটির সভাপতি অনুপ বড়ুয়া ও সাধারণ সম্পাদক বাবুল বড়ুয়া, স্থানীয় বাসিন্দা পটল বড়ুয়া, এমপির ব্যক্তিগত সহকারী আমিন চৌধুরীসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।
কেন্দ্রীয় জেতবন বৌদ্ধ বিহারের বর্তমান পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দ জানান, বিহার পরিচালনায় দুইবছরের কমিটির পাঁচবছর হয়ে যাওয়ায় বিগত ছয়মাস আগে নতুন কমিটি গঠন করা হয়। তবে পূর্বের কমিটির কাছে বিহারের বিপুল পরিমাণ টাকা গচ্ছিত থেকে যায়। তারা নতুন কমিটির কাছে সেই টাকা হস্তান্তর না করাসহ নতুন কমিটিকে অসহযোগীতা করায় বিরোধ চরমে পৌঁছে। এই অবস্থায় স্থানীয় সাংসদ ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম মহোদয়ের শরণাপন্ন হলে তিনি উদ্যোগ নেন বিরোধ নিষ্পত্তি করে দিতে।
কমিটির নেতৃবৃন্দরা আরো জানান, বিহারের কিছু জায়গা বেদখল হয়ে গিয়েছিল বলে কেউ কেউ দাবি উত্থাপন করে আসছিলেন। এমপি জাফর আলম কর্তৃক শনিবারের পরিদর্শন এবং পরবর্তী বৈঠকে এসব বিরোধ নিষ্পত্তি করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এতে বড়ুয়া সম্প্রদায়ের মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •