আলাউদ্দিন, লোহাগাড়া প্রতিনিধি :

লোহাগাড়া উপজেলায় কঠোর লকডাউনেও নানা অযুহাত বের হচ্ছে মানুষ। গ্রামে গ্রামে খুলেছে কিছু সংখ্যক দোকানপাট। রাস্তাঘাট ও অলিগলিতে মানুষজনের সমাগম বেড়েছে।

লকডাউনের ৭ম দিনেও সড়ক-মহাসড়কে গণপরিবহন না থাকলেও ব্যাটারি চালিত আটো রিকশা,মোটরসাইকেল ও জরুরি পরিবহনের সংখ্যা আগের চেয়েও অনেক বেশি দেখা গেছে।

তবে লকডাউন এবং স্বাস্থ্যবিধি বাস্তবায়নে কঠোর ভূমিকায় মাঠে রয়েছে উপজেলা প্রশাসন,সেনাবাহিনী ও পুলিশ। সড়কে বের হওয়া মানুষকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি পড়তে হচ্ছে।

বুধবার (৭ জুলাই) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় পৃথক ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন প্রশাসন।

অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আহসান হাবীব জিতু এবং উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট খোরশেদ আলম চৌধুরী।

অভিযানে অযথায় ঘুরাঘুরী করার দায়ে সংক্রমণ আইন ২০১৮ এর ২৪ ধারামতে ৩৩টি মামলায় ১৩ হাজার ৩০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আহসান হাবীব জিতু বলেন, আমরা সর্বাত্মকভাবে চেষ্টা করে যাচ্ছি মানুষকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে। লকডাউনে ঘর থেকে বের হলেই করা হচ্ছে জরিমানা। যারাই লকডাউনে কারণ ছাড়া ঘর থেকে বের হচ্ছেন, প্রশাসনের নজরে আসলেই করা হচ্ছে জরিমানা।

সবাইকে তারা সচেতন হওয়ার পরামর্শ দেন, অতি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হতে নিষেধ করছেন তিনি ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •