মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজারে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও সন্ত্রাসী গ্রেফতারে সফল অফিসার হিসাবে কক্সবাজার শহর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আনোয়ার হোসেন’কে পুরস্কৃত করা হয়েছে। কক্সবাজারের পুলিশ সুপার মোঃ হাসানুজ্জামান (পিপিএম-সেবা) তাঁর কার্যালয়ে বুধবার ৭ জুলাই জেলা পুলিশের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় আনুষ্ঠানিকভাবে ক্রেস্ট প্রদানের মাধ্যমে এ সাফল্যের এ স্বীকৃতি প্রদান করেন।

আরো বিভিন্ন ক্যাটাগরীতে সফলতার জন্য একই অনুষ্ঠানে জেলা পুলিশের অন্যান্যদেরকেও পুরস্কৃত করা হয়। এসময় জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া, কক্সবাজার শহরের টেকপাড়া মাঝিরঘাট থেকে অস্ত্র উদ্ধার ও আলোচিত ডাবল মার্ডার রায়হান-শাহেদুল হত্যা মামলা’র এজাহারনামীয় আসামিদের গ্রেফতার করার স্বীকৃতিস্বরূপ কক্সবাজার শহর পুলিশ ফাঁড়ির ১৬ জন অফিসার-ফোর্সকে বিভিন্ন মূল্যমানের অর্থ পুরস্কৃত হয়েছে।
পুলিশ সুপার মোঃ হাসানুজ্জামান (পিপিএম-সেবা) এর পক্ষ থেকে ১৬ জন অফিসার-ফোর্সকে গত ২ জুলাই বিভিন্ন মূল্যমানের অর্থ পুরস্কার প্রদান করা হয়।
করোনা মহামারীর কারণে কঠোর বিধিনিষেধ চলমান থাকায় পুলিশ সুপার নিজে পুরস্কার বিতরণ না করে ফাঁড়িতে প্রেরণ করেন এবং তাঁর নির্দেশনায় ফাঁড়ির ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন পুরস্কারপ্রাপ্ত ব্যক্তিদের মধ্যে অর্থ-পুরস্কার বিতরণ করেন।

চৌকস ও মেধাবী পুলিশ কর্মকর্তা ইন্সপেক্টর আনোয়ার হোসেন কাজের সফলতার স্বীকৃতি পাওয়ায় মহান আল্লাহর কাছে শোকরিয়া জ্ঞাপন করে কক্সবাজারের পুলিশ সুপার মোঃ হাসানুজ্জামান (পিপিএম) সহ সংশ্লিষ্ট সকলের নিকট কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি পুরস্কৃত হওয়ার অনুভূতি প্রকাশ করে বলেন, এ প্রাপ্তি তার একার নয়, ফাঁড়ির সকল সদস্যের। কারণ ফাঁড়ির সকল সদস্যের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এবং পুলিশ সুপার মহোদয় সহ জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঠিক নির্দেশনায় এ অর্জন সম্ভব হয়েছে। পরিদর্শক আনোয়ার হোসেন আরো বলেন, এ স্বীকৃতি ভবিষ্যতে পেশাদারিত্বের সাথে ঝুঁকি নিয়ে দায়িত্ব পালনে সকলে আরো উৎসাহিত হবে। ভবিষ্যত দায়িত্ব পালনে আরো সফলতার জন্য কক্সবাজার শহর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আনোয়ার হোসেন সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •