মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার বিদ্যুৎ বিতরণ বিভাগের পূর্বের সিডিউল অনুযায়ী সড়ক ও জনপথ বিভাগের উন্নয়ন কাজের জন্য কক্সবাজার শহরের কিছু কিছু এলাকায় বুধবার ৭ জুন সকাল ৭ টা থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দেওয়ার কথা ছিলো। এদিন সকাল ৭ টা থেকে কোপা আমেরিকা কাপের আর্জেন্টিনা-কলম্বিয়া সেমিফাইনাল খেলা থাকায় খেলাটি শেষ হওয়ার পর বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করতে কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র  ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান কক্সবাজার বিদ্যুৎ বিতরণ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আবদুল কাদের গনি’কে অনুরোধ জানান। মেয়রের অনুরোধে বুধবার খেলা শেষ না হওয়া পর্যন্ত বিদ্যুৎ সরবরাহ চালু রাখা হবে বলে নির্বাহী প্রকৌশলী আবদুল কাদের গনি সিবিএন-কে জানিয়েছেন।

কক্সবাজার শহরের যেসব এলাকায় বুধবার আর্জেন্টিনার খেলা শেষ হওয়ার পর থেকে বিকেল সাড়ে ৪ টা পর্যন্ত বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ থাকবে, সেসব এলাকা হলো-দক্ষিন হাজীপাড়া, দক্ষিন ডিককুল, বার্মিজ মার্কেট থেকে পশ্চিমে পৌরসভা কার্যালয় পর্যন্ত মেইন রোডের দক্ষিন পার্শ্ব, বৌদ্ধ মন্দির রোড, বৈদ্যঘোনা, ঘোনার পাড়া, হাসপাতাল রোড, মোহাজেরপাড়া, দক্ষিন রুমালিয়ার ছড়া, পাহাড়তলী রোড, ইউসুলেরঘোনা, পাহাড়তলী বাজার, কচ্ছপিয়া পুকুর পাড়, এবিসি ঘোনা এলাকা, চেয়ারম্যান ঘাটা এলাকা, হালিমাপাড়া এলাকা, নাপাঞ্জা পাড়া, উত্তর হাজী পাড়া, লিংক রোড, জানার ঘোনা, দক্ষিন মুহুরী পাড়া, সাদর পাড়া, বিসিক এলাকা, পুরাতন কমার্স কলেজ রোড, টেকপাড়া, চাউলবাজার, বড় বাজার, বাজার ঘাটা, পান বাজার রোড, লাল দীঘির পাড়, বঙ্গবন্ধু সড়ক (সিনেমা রোড), এন্ডারসন রোড, কস্তুরা ঘাট, পেশকার পাড়া, ঝাউতলা, গাড়ীর মাঠ, এয়ারপোর্ট রোড, থানা রোড, বদর মোকাম, চেয়ারম্যান পাড়া, ফিশারি ঘাট, মিডল নুনিয়ারছড়া, উত্তর নুনিয়ারছড়া, ৬ নং ঘাট সহ তৎসংলগ্ন এলাকা।

নির্বাহী প্রকৌশলী আবদুল কাদের গনি আরো জানান, ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র এলাকা বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রেখে তারা বৈদ্যুতিক খুঁটি গুলো সরানোর চেষ্টা করবেন। তবে কোন কোন জায়গায় তা সম্ভব না হলে উল্লেখিত পুরো এরিয়া বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রেখে কাজ করতে হবে। সম্ভব হলে এদিন বিকেল সাড়ে ৪ টার আগেই তারা বিদ্যুৎ সরবরাহ চালু করার জন্য প্রাণান্ত চেষ্টা করবেন বলে জানান। তিনি এ বিষয়ে সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন। তবে আবহাওয়া বেশি দূর্যোগপূর্ণ থাকলে কাজ করা সম্ভব না হলে বিদ্যুৎ সরবরাহ চালু থাকবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •