মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

সোমবার ৫ জুলাই কক্সবাজার জেলায় ২টি প্রতিষ্ঠানে মোট ১৩৩ জনের দেহে করোনা শনাক্ত করা হয়েছে। তারমধ্যে, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ল্যাবে ৭১২ জনের নমুনা টেস্ট করে ১১০ জনের টেস্ট রিপোর্ট ‘পজেটিভ’ পাওয়া গেছে। বাকী ৬০২ জনের নমুনা টেস্ট রিপোর্ট ‘নেগেটিভ’ আসে।

এছাড়া, কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে একইদিন ৫৬ জনের র‍্যাপিড এন্টিজেন টেস্ট (Rapid Antigen Test-RAT) পদ্ধতিতে নমুনা টেস্ট করে ২৩ জনের টেস্ট রিপোর্ট ‘পজেটিভ’ শনাক্ত করা হয়। বাকী ৩৩ জনের টেস্ট রিপোর্ট ‘নেগেটিভ’ আসে।

কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. অনুপম বড়ুয়া সিবিএন-কে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের (পিসিআর) ল্যাবে শনাক্ত হওয়া ১১০ জন করোনা রোগীর মধ্যে ৪ জন আগে আক্রান্ত হওয়া রোগীর ফলোআপ টেস্ট রিপোর্ট। নতুন শনাক্ত হওয়া বাকী ১০৬ জন রোগীর মধ্যে ২ জন বান্দরবান জেলার এবং ২ জন চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার রোগী। অবশিষ্ট ১০২ জন সকলেই কক্সবাজারের রোগী।

তারমধ্যে, ১৯ জন রোহিঙ্গা শরনার্থী। এছাড়া সদর উপজেলায় ৪০ জন, উখিয়া উপজেলায় ২০ জন, রামু উপজেলায় ১ জন, টেকনাফ উপজেলায় ১২ জন, চকরিয়া উপজেলায় ৫ জন, পেকুয়া উপজেলায় ৩ জন, কুতুবদিয়া উপজেলায় ১ জন এবং মহেশখালী উপজেলার ১ জন রোগী রয়েছে।

এদিকে, র‍্যাপিড এন্টিজেন টেস্ট পদ্ধতিতে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে করোনা শনাক্ত হওয়া ২৩ জনের মধ্যে ১৮ জন কক্সবাজার সদর উপজেলার, ২ জন টেকনাফ উপজেলার এবং ৩ জন উখিয়া উপজেলার রোগী।

এনিয়ে, ৫ জুলাই পর্যন্ত কক্সবাজার জেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা হলো-মোট ১২ হাজার ৮২২ জন। এরমধ্যে, গত ৪ জুলাই পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে জেলায় মৃত্যুবরণ করেছে ১৩০ জন। তারমধ্যে, ২০ জন রোহিঙ্গা শরনার্থী। আক্রান্তের তুলনায় মৃত্যুর হার ১’০৭% ভাগ।

গত ৪ জুলাই পর্যন্ত কক্সবাজার জেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে ১১ হাজার ১৯৩ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন। আক্রান্তের তুলনায় সুস্থতার হার ৮৮’১৬% ভাগ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •