মো. নুরুল করিম আরমান, লামা:
বেড়েই চলছে বান্দরবানের লামা উপজেলায় প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে সারা দেশের মত উপজেলায়ও পালিত হচ্ছে কঠোর লকডাউন। এদিকে লকডাউনের ৫ম দিনেই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের তিন নার্সসহ ৫ ব্যক্তির নমুনা পরীক্ষার ফলাফল পজেটিভ এসেছে, অর্থাৎ তাদের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। এ নিয়ে করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়লো ৯২ জনে। নমুন পরীক্ষা করা হয়েছে ৭০১ জনের। আক্রান্তের মধ্যে ৭৬ জন সুস্থ হয়েছে বাড়ী ফিরেছেন। বাকী ৯জন আইশোলেশন ও হোম কোয়ারেন্টাইনে চিকিৎসাধীন আছেন ৭ জন। তবে এ পর্যন্ত মারা যায়নি কেউ। সোমবার দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার (রোগ নিয়ন্ত্রণ) মনিরুজ্জামান মোহাম্মদ। তিনি জানান, ৫ জনের নমুনা দেওয়ার পর পরীক্ষার জন্য পাঠানো হলে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সিনিয়র স্টাফ নার্স খুশিয়ারা, রেশমি রানী দে ও জয়া চাকমা এবং প্রধান সহকারী কাম হিসাব রক্ষক মংপ্রু মার্মা, পৌরসভা এলাকার চেয়ারম্যান পাড়ার রিফাত ইসলামের নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদনে করোনা পজেটিভ আসে। করোনা রিপোর্ট পজেটিভ হলেও বর্তমানে তারা মোটামুটি সুস্থ আছেন। অপরদিকে করোনা সংক্রমন এড়াতে গত বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ঘোষিত লকডাউন বাস্তবায়নে পুলিশের পাশাপাশি সেনাবাহিনী মাঠে কাজ করতে দেখা গেছে।

এ বিষযে লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রেজা রশীদ বলেন, প্রাণঘাতী করোনা সংক্রমন এডাতে আক্রান্তদের স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইশোলেশন ও হোম কোয়ারেন্টাইনে রেখে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া ১ জুলাই থেকে সারা দেশের মত উপজেলায়ও লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে। লকডাউন বাস্তবায়নে পুলিশ ও সেনাবাহিনী মাঠে কাজ করছে। কেউ স্বাস্থ্য বিধি অমান্য করলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •