মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

গত ৩ দিন অর্থাৎ গত ২ জুলাই হতে ৪ জুলাই পর্যন্ত কক্সবাজার জেলায় করোনার নমুনা টেস্টের তুলনায় পজেটিভিটির হার ২০’৭৪% ভাগ। কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাব ও কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের র‍্যাপিড এন্টিজেন টেস্ট (Rapid Antigen Test-RAT) পদ্ধতিতে ২ টি প্রতিষ্ঠানে নমুনা টেস্টের উল্লেখিত ৩ দিনের রিপোর্ট থেকে এ তথ্য পাওয়া যায়। অথচ এ সময়ে কক্সবাজার সহ সমগ্র দেশে কঠোর বিধিনিষেধ (লকডাউন) চলমান রয়েছে।

কক্সবাজার সিভিল সার্জন অফিসের রোগ নিয়ন্ত্রণ বিভাগের মেডিকেল অফিসার ডা. সাকিয়া হকের দেওয়া তথ্য মতে, এই ৩ দিনে সর্বোচ্চ সংখ্যায় ‘পজেটিভ’ রোগী শনাক্ত করা হয়েছে গত ৪ জুলাই। এদিন জেলার ২ টি প্রতিষ্ঠানে মোট করোনা রোগী শনাক্ত করা হয় ১৪০ জন। এদিনে নমুনা টেস্টের তুলনায় পজেটিভিটির হার ছিলো ২৪’৭৩% ভাগ। এছাড়া গত ৩ জুলাই করোনা শনাক্ত করা হয়েছে ৮১ জন এবং পজেটিভিটির হার ছিল ২৩’৩৪% ভাগ। গত ২ জুলাই করোনা শনাক্ত করা হয়েছে ১০১ জন এবং পজেটিভিটির হার ছিল ১৪’১৭% ভাগ। এই ৩ দিনে কক্সবাজার জেলায় মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছে ৩২২ জন।

দেশে পজিটিভিটির গড় হার ৫ শতাংশের নীচে আসলেই চলমান কঠোর বিধিনিষেধ প্রত্যাহার ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলার চিন্তা ভাবনা করা হবে বলে রাষ্ট্রের নীতিনির্ধারণী মহল ইতিপূর্বে ঘোষণা দিয়েছেন।

এদিকে, শুরু থেকে ৪ জুলাই পর্যন্ত কক্সবাজার জেলায় মোট ১২ হাজার ৬৯৬ জন করোনা রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। তারমধ্যে, করোনা আক্রান্ত হয়ে জেলায় মারা গেছে মোট ১৩০ জন রোগী। আবার এরমধ্যে, ২০ জন রোহিঙ্গা শরনার্থী। আক্রান্তের তুলনায় জেলায় মৃত্যুর হার ১’০৭% ভাগ। মোট আক্রান্তের মধ্যে ১১ হাজার ১৯৩ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন। আক্রান্তের তুলনায় সুস্থতার হার ৮৮’১৬% ভাগ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •