বিনোদন ডেস্ক: দাম্পত্যের সুতো ছিঁড়লেও তাঁদের বন্ধুত্ব যে এখনও ‘অটুট’, অনুরাগীদের এক ভিডিয়োয় সেই বার্তাই দিলেন আমির খান এবং কিরণ রাও।
অনুরাগীদের উদ্দেশে অভিনেতা বলেছেন, “আপনাদের নিশ্চয়ই দুঃখ হয়েছে, ভাল লাগেনি। খবরটা জেনে হয়তো অনেকে অবাকও হয়েছেন। কিন্তু আপনাদের জানাতে চাই, আলাদা হয়ে গেলেও আমরা খুশি এবং এখনও একই পরিবারের অংশ।”

এর পরেই পাশে চুপ করে বসে থাকা কিরণের হাত ধরে আমিরের আশ্বাস, সম্পর্কে পরিবর্তন এলেও একে অপরের সঙ্গেই রয়েছেন তাঁরা।

অনুরাগীদের কাছে আমিরের অনুরোধ, “আপনারা আমাদের নিয়ে চিন্তা করবেন না। আমরা যাতে খুশি থাকতে পারি, সেই প্রার্থনা করুন।” পুরো ভিডিয়োতে কিরণ একটি কথাও বলেননি। তবে তাঁর সম্মতি সূচক হাসি বুঝিয়ে দিয়েছে আমিরের কথার সঙ্গে সহমত তিনি।

তাঁদের বিচ্ছেদের খবর চাউর হতেই অনুরাগীদের কাছ থেকে একের পর এক বার্তা পাচ্ছেন আমির-কিরণ। এমনই সময় তারকা দম্পতির একটি ভিডিয়ো বার্তা ছড়িয়ে পড়েছে নেটমাধ্যমে। বলিউডের এক পাপারাৎজি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছিলেন ভিডিয়োটি। সেখানে পাশাপাশি আমির এবং কিরণ। জীবনের মোড় ঘোরানো সিদ্ধান্তের পরেও তাঁদের সহজ সমীকরণ চোখে পড়ে।

গত শনিবারের যৌথ বিবৃতিতেও একই কথা জানিয়েছিলেন আমির এবং কিরণ। বিবাহবিচ্ছেদকে তাঁদের সফরের শেষ হিসবে নয়, বরং নতুন এক সফরের শুরু হিসেবে দেখতে অনুরোধ করেছেন অনুরাগীদের।

মা-বাবা হিসেবে ছেলের আজাদের সমস্ত দায়িত্ব পালন করবেন তাঁরা। ব্যক্তি জীবনের সিদ্ধান্তের আঁচ পড়বে না পেশাগত ক্ষেত্রেও।

ভিডিয়োয় আমির জানিয়েছেন, ‘পানি ফাউন্ডেশন’-এর সমস্ত কাজ তিনি এবং কিরণ করবেন। মহারাষ্ট্রে খরায় ক্ষতিগ্রস্ত বিভিন্ন অঞ্চলকে সাহায্য করতে ‘পানি ফাউন্ডেশন’ তৈরি করেন আমির এবং কিরণ। তাঁর কথায়, “পানি ফাউন্ডেশন আমার এবং কিরণের কাছে আমাদের সন্তান আজাদের মতো। আমরা সারা জীবন একই পরিবারের অংশ হিসেবেই থাকব।”

গত শনিবার যৌথ বিবৃতির মাধ্যমে ব্যক্তি জীবনের সিদ্ধান্তের কথা প্রকাশ্যে আসতেই নেটমাধ্যমে প্রশ্নের বন্যা। হন্যে হয়ে ১৫ বছরের ‘সুখী’ দাম্পত্য ভাঙার নেপথ্যে কারণ অনুসন্ধানে ব্যস্ত অনুরাগীদের একাংশ। তেমনই সময় এল এই ভিডিয়ো-বার্তা। -আনন্দবাজার

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •