ইমাম খাইর, সিবিএন:
কক্সবাজার জেলা জনশক্তি ও কর্মসংস্থান অফিসে গত দুইদিনে ২৮৩ জন বিদেশগামী ব্যক্তি করোনার টিকার জন্য নিবন্ধন করেছে।

সেখানে ২ জুলাই ১১২ জন এবং ৩ জুলাই ১৭১ জন।

সার্ভে অফিসার মিঠুন মুৎসুদ্দী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

২ জুলাই থেকে নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। প্রাথমিকভাবে শুধুমাত্র সৌদিআরব ও কুয়েত প্রবাসীদের নিবন্ধন চলছে। তবে, জেলা জনশক্তি অফিসে জনবল সংখ্যা খুব কম হওয়ায় নিবন্ধনে হিমশিম খেতে হচ্ছে। প্রথম দুই দিন ডাটা এন্ট্রির কাজে দুইজন দেখা গেলেও রবিবার মাত্র ১জন ছিল। যে কারণে খুব ধীরগতিতে হচ্ছে নিবন্ধন কাজ। সহকারী পরিচালক থাকলেও তাকে অফিস করতে দেখা যায় নি।

এদিকে, প্রবাসীদের করোনার টিকার জন্য নিবন্ধন করতে উপজেলাভিত্তিক সিডিউল প্রকাশ করা হয়েছে।

জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিস থেকে রবিবার (৪ জুলাই) প্রকাশিত সিডিউল হলো-
কক্সবাজার সদর ৪ জুলাই, রামু ৫ জুলাই, চকরিয়া ৬ জুলাই, পেকুয়া ৭ জুলাই, মহেশখালী ৮ জুলাই, কুতুবদিয়া ৯ জুলাই, টেকনাফ ১০ জুলাই এবং উখিয়া ১১ জুলাই।
প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত নিবন্ধন কার্যক্রম চলবে। অনলাইনের মাধ্যমে ঘরে বসেও নিবন্ধন করা যাবে।

ঘরে বসে কিভাবে নিবন্ধন করবেন?
অনলাইনে ‘আমি প্রবাসী’ (Ami Probashi) অ্যাপে নিবন্ধন করলে কক্সবাজার জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসে গিয়ে আর নিবন্ধন করতে হবে না।
তবে, নিবন্ধনের আগে বিকাশ, নগদ, শিউর ক্যাশ ইত্যাদির মাধ্যমে পাসপোর্ট নাম্বার উল্লেখপূর্বক ২০০ টাকা নিবন্ধন ফি জমা করতে হবে। টাকা জমা না হলে অনলাইনে নিবন্ধন নিবে না।
বিএমইটির সুরক্ষা অ্যাপ www.surokkha.gov.bd উন্মুক্ত হলে (এখন সাময়িক বন্ধ) ডাটাবেজে (Ami Probashi) নিবন্ধিত কর্মীরা কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রাপ্তির লক্ষ্যে সুরক্ষা অ্যাপ www.surokkha.gov.bd এর মাধ্যমে জরুরিভাবে টিকা গ্রহণের জন্য রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। রেজিস্ট্রেশন সফল হলে মোবাইলে মেসেজের মাধ্যমে টিকা সেন্টার ও টিকার তারিখ জানা যাবে।
সুরক্ষা প্ল্যাটফর্মে নিবন্ধিত হয়ে টিকাকেন্দ্র ও তারিখ সংক্রান্ত মেসেজ না পাওয়া পর্যন্ত বিদেশগামী কর্মীদের কোনও হাসপাতাল, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়, বিএমইটি বা জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসে স্বাস্থ্যবিধি ভঙ্গ করে জমায়েত হয়ে টিকা গ্রহণের সুযোগ নেই।
এদিকে, ১ জুলাই প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় থেকে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গৃহীত সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নকল্পে বয়স প্রমার্জন ও অগ্রাধিকার পাওয়ার লক্ষ্যে যেসকল কর্মীর বিএমইটি’র ডাটাবেজে নিবন্ধন ও স্মার্ট কার্ড নেই, অথবা চলতি বছরের ১ জানুয়ারির আগের বিএমইটি’র স্মার্ট কার্ড আছে, সেসব কর্মীর টিকার জন্য সুরক্ষা অ্যাপে নিবন্ধনের সুবিধার্থে বৈধ পাসপোর্ট দিয়ে ২ জুলাই থেকে বিএমইটি’র ডাটাবেজে নিবন্ধন করতে হবে। তবে এই বছরের জানুয়ারি থেকে নিবন্ধিত কর্মীদের নতুন করে নিবন্ধনের প্রয়োজন হবে না।’

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •