মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার সদর উপজেলার বাংলাবাজারের মোক্তারকুল মিয়াজী বাড়ি নিবাসী, ছুরতিয়া ফাজিল মাদ্রসার সাবেক সিনিয়র শিক্ষক, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আহমদুর রহমান মাষ্টার (৭০) এর নামাজে জানাজা শনিবার ৩ জুলাই জোহরের নামাজের পর ছুরতিয়া ফাজিল মাদ্রাসা মাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছে। জানাজার পূর্বে এই বীর মুক্তিযোদ্ধার কফিন জাতীয় পাতাকা দিয়ে ঢেকে দেওয়া হয়। জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, কক্সবাজার সদর উপজেলা প্রশাসন সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পক্ষ হতে তাঁর কফিনে পুষ্পস্তবক দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। মরহুমের ভ্রাতুষ্পুত্র মহিউদ্দিন আলিফ সিবিএন-কে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি আরো জানান, কক্সবাজার সদরের ইউএনও মিল্টন রায়ের নেতৃত্বে মহান মুক্তিযুদ্ধের বীর সেনানী আলহাজ্ব আহমদুর রহমান মাষ্টারের প্রতি রাষ্ট্রীয় সম্মান জানিয়ে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়।

জানাজার পূর্বে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান, সদরের ইউএনও মিল্টন রায়, কক্সবাজার পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আবছার,
মরহুমের ছোট ভাই সাবেক উপজেলা প্রকৌশলী আলহাজ্ব মোহাম্মদ আমিন উল্লাহ, আওয়ামী লীগ নেতা মনিরুল ইসলাম চৌধুরী, মাওলানা মোকতার, মাওলানা বদরু, ঝিলংজা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান টিপু সুলতান প্রমুখ মরহুমের বর্নাঢ্য জীবনের স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন।

জানাজা শেষে আলহাজ্ব আহমদুর রহমান মাষ্টারকে মোক্তারকুল আবুল ফজল দীঘির পাড় কবরস্থানে তাঁর পিতা-মাতার কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়। লকডাউনের মাঝেও জানাজায় বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ, বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ সহ প্রচুর মুসল্লীর সমাগম ঘটে।

প্রসঙ্গত, ১৯৭১ এর রনাঙ্গনের বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আহমদুর রহমান মাষ্টার গত শুক্রবার রাত পৌনে ৯ টার দিকে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্নালিল্লাহি–রাজেউন)। মরহুম বীর মুক্তিযোদ্ধা মাস্টার আলহাজ্ব আহমদুর রহমান মরহুম মৌলভী আলী আকবর ও মরহুমা নও বাহারের পুত্র। বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আহমদুর রহমান মাষ্টার মৃত্যুকালে স্ত্রী, ৩ পুত্র, ২ কন্যা, অসংখ্য ছাত্র ছাত্রী, আত্মীয় স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে যান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •