ইমাম খাইর, সিবিএন:

সাত দিনের কঠোর লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে পর্যটন শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে অভিযান জোরদার করা হয়েছে। সড়কে চলছে তল্লাশী। উপযুক্ত প্রমাণপত্র দেখাতে না পারলে নেয়া হচ্ছে ব্যবস্থা। গন্তব্যের উল্টোদিকে ফেরত যেতে হচ্ছে যাত্রী-পথচারীদের। আইন অমান্য করায় বেশ কয়েকজনকে জরিমানাও করা হয়েছে।

শুক্রবার (২ জুলাই) দুপুরে বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন (বিজিবি)-এর একটি টিম শহরের লালদীঘিপাড়ে অবস্থান নেয়। তারা মোটরসাইকেল, রিক্সা ইত্যাদি প্রতিটি যানবাহন তল্লাশী করে। বাদ যাচ্ছে না সাধারণ পথচারীরাও। সংশ্লিষ্ট দপ্তরের পরিচয়পত্র বা প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখাতে না পারলে উল্টো দিকে ফেরত দিয়েছে। এ সময় ব্যাটারিচালিত অটোরিক্সা আটকিয়ে সতর্ক করেছে চালকদের। রিক্সা থেকে নামিয়ে দিয়েছে যাত্রীদের।

একইভাবে, জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের বেশ কয়েকটি টিম মাঠে কাজ করছে। শহরের বড়বাজার এলাকায় কয়েকজন দোকানদারকে জরিমানা করা হয়েছে। সড়কে মোটরসাইকেল চালকদের উপযুক্ত প্রমাণপত্র তল্লাশী করেছে। সতর্ক করেছে পথচারীদের।

প্রথম দিন কঠোর লকডাউন পালিত হয়েছে। দ্বিতীয় দিনেও সকাল বেলায় জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, বিজিবি সরব দেখা গেছে। টহলে ছিল সেনা বাহিনী।

এদিকে, লকডাউনের প্রথম দিন (১ জুলাই) জেলায় পৃথক অভিযানে মোট ১৭২ জনকে ৯১,৬৫০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

পৃথক ৫০টি অভিযানে মামলা হয়েছে ১৬১টি। তবে, এ সময় কাউকে কারাদণ্ড দেয়া হয়নি।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •