ইমাম খাইর, সিবিএনঃ
টানা সাত দিনের কঠোর লকডাউনের দ্বিতীয় দিনও কড়াকড়ি হচ্ছে। শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটির দিন হলেও ছুটি নেই প্রশাসনের কারো। তাই মাঠে নেমে পড়লেন জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ। দুপুরে শহরের প্রধান সড়ক হয়ে বাজারঘাটা, বড় বাজার এলাকায় বিভিন্ন সড়ক ঘুরে দেখেন। যেখানে ছোটখাটো দোকান খোলা পেয়েছেন তাদের সতর্ক করেছেন জেলা প্রশাসক। পথচারীদের নিজ হাতেই পরিয়ে দিয়েছেন মাস্ক।

সেই সঙ্গে বিনা প্রয়োজনে আপাততঃ বাড়ি থেকে বের না হতে আহবান জানিয়েছেন ডিসি মো. মামুনুর রশীদ।

এ সময় কয়েকজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ, আনসার সদস্যরা সঙ্গে ছিলেন।

বাবার কুলে মাস্কবিহীন শিশুকে মাস্ক পরিয়ে দেন জেলা প্রশাসক। -ছবি: শুক্রবার দুপুরের।

এদিকে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, লকডাউনের প্রথম দিন (১ জুলাই) জেলায় পৃথক অভিযানে মোট ১৭২ জনকে ৯১,৬৫০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

পৃথক ৫০টি অভিযানে মামলা হয়েছে ১৬১টি। তবে, এ সময় কাউকে কারাদণ্ড দেয়নি অভিযানকারীরা। ব্যাপক গণসচেতনতাকেই গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে বেশি।

১ জুলাই সকাল ৬টা থেকে সাত দিনের কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয়েছে।

বিধিনিষেধ চলাকালে পর্যটন শহরের রাস্তা-ঘাট ফাঁকা হয়ে পড়েছে।

সড়কে সাধারণ মানুষের চলাচল খুবই সীমিত পরিসরে। রিক্সা, মোটরসাইকেল ছাড়া অন্য কোন যানবাহন চলছেনা।

জরুরী পণ্যবাহী গাড়ি চলেছে প্রমাণপত্র দেখিয়ে।

সুনির্দিষ্ট পরিচয়পত্র দেখাতে না পারলে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •