বার্তা পরিবেশক:
চকরিয়া উপজেলায় এক ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ককে প্রকাশ্যে ‘প্রাণে শেষ’ করার হুমকি দিলেন ডুলাহাজারা ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আমিন, এমন অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ করেছে ওই ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক তৌহিদুল ইসলাম।

তিনি বাদি হয়ে উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রিট আদালতে মামলা অভিযোগ দায়ের করেছেন। আজ বুধবার ইউএনও কার্যালয়ে এই মুচলেকা মামলা দায়ের করা হয়।

মামলা বিবাদী করা হয় ডুলাহজারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল আমিন (৪৫), একই ইউনিয়নের বালুরচর গ্রামের মৃত সুলতান আহমদ এর ছেলে মোবিনুল হক (৪৫) ও নুরুল আমিনের ছেলে সাগর (২২)। মামলাটি আমলে নিয়ে উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রিট আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দ শামসুল তাবরীজ আগামী ১৩জুলাই আসামিদের শোকজ করেছেন।

মুচলেকা মামলায় নথি ঘেঁটে দেখা গেছে, মঙ্গলবার (২৯জুন) রাত আটটার দিকে ডুলাহাজারা ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক তৌহিদুল ইসলাম বাজারে একটি চায়ের দোকানে নাস্তা করছিলাম। এসময় ডুলাহাজারা ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আমিন তেড়ে এসে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে। এসময় লোকজন এগিয়ে আসলে আমিন চেয়ারম্যান সটকে পড়ে। এর আগে ডুলাহাজারা ইউনিয়নের সামাজিক বনায়নের সভাপতির পদের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রাণে শেষ করে দেওয়ার হুমকি দেন।

ডুলাহাজারা ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক তৌহিদুল ইসলাম বলেন, ‘ডুলাহাজারা ইউপি চেয়ারম্যান হওয়ার সুবাধে তিনি প্রভাব বিস্তার করে আমাকে হত্যা করতে পারেন। কারণ তিনি এক সময় চিহ্নিত ডাকাত ছিলেন। এখনো তাঁর সন্ত্রাসী বাহিনী রয়েছে। এখন চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। গুম করে হত্যা করতে পারে এমন আশঙ্কায় উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রিট আদালতে মামলা দায়ের করেছি।’

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আরেক যুবলীগ নেতা বলেন, ‘নুরুল আমিন চেয়ারম্যান হওয়ার পর থেকে বেপরোয়া হয়ে জীবযাপন করছে। এমন কোনো অপকর্ম নেই, যা তিনি করে না। রোহিঙ্গা নাগরিক ভোটার করতে সহায়তা করা, বিচারপ্রার্থী নারীদের কুপ্রস্তাব দেওয়া, পাহাড় কেটে মাটি লুট করা, ক্ষমতার অপব্যবহার করাসহ নানা অভিযোগ রয়েছে।’

ডুলাহাজারা ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আমিন বলেন, ‘সামাজিক বনায়নের সভাপতির নির্বাচন নিয়ে তাঁর সঙ্গে মাত্র কথা কাটাকাটি নিয়ে হয়েছে। এর চেয়ে বেশি কিছু নয়। তৌহিদ আমার কোনো প্রতিদ্বন্দ্বি নয়।’

এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রিট সৈয়দ শামসুল তাবরীজ। তিনি বলেন, ‘এক ব্যক্তি এই সংক্রান্ত একটি মামলা দায়ের করেছে। ১৩জুলাই তাঁদের হাজির হতে বলা হয়েছে।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •