বলরাম দাশ অনুপম :
কক্সবাজার সদর উপজেলা পরিষদের নবাগত নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মিল্টন রায় বলেছেন, করোনা থেকে বাঁচার অন্যতম উপায় মাস্ক পরিধান করা। সাথে সরকার নির্দেশিত সকল প্রকারের স্বাস্থ্যবিধিও মানতে হবে।  করোনা সংক্রমণ থেকে বাঁচতে সকলকে সরকার ঘোষিত লকডাইন মেনে ঘরে থাকতে হবে। অপ্রয়োজনে  ঘরের বাহির হবেন না।

নবাগত ইউএনও বুধবার (৩০ জুন) সকালে সদর উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে দেশে করোনার প্রভাব বৃদ্ধির ফলে জনগণের মাঝে কোভিডের বিস্তার রোধ, সচেতনতা সৃষ্টি এবং মাস্ক পরিধানের অভ্যাস গড়ে তোলার লক্ষ্যে ব্র্যাক “কোভিড-১৯ প্রতিরোধে সামাজিক দূর্গ” নামে একটি প্রকল্পের আওতায় দরিদ্র জনগণের মাঝে মাস্ক বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে উপরোক্ত কথা বলেন।

জানা গেছে, এই প্রকল্পের আওতায় ব্র্যাকের স্বাস্থ্যকর্মী ও স্বাস্থ্য সেবিকারা বাড়ি বাড়ি গিয়ে কোভিড সংক্রান্ত বিভিন্ন বার্তা প্রদান ও মাস্ক বিতরণ করবেন। এছাড়া হাট বাজার, মসজিদ, মন্দির ও জনসমাবেশ ঘটে এমন স্পট গুলোতেও মাস্ক বিতরণ করবেন। পাশাপাশি বিভিন্ন গুরুত্ব স্থানে কোভিড সচেতনা মূলক ব্যানার টাঙ্গানোর কার্যক্রমও চালিয়ে যাবেন। চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ব্র্যাকের এই কার্যক্রম চলমান থাকবে।

মাস্ক বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন, সদর উপজেলা কৃষি অফিসার জাহিদ হাসান, ব্র্যাকের জেলা সমন্বয়ক অজিত নন্দী, সাংবাদিক সংসদ কক্সবাজার-এর সহ-সভাপতি বলরাম দাশ অনুপম ও উক্ত প্রকল্পের সমন্বয়কারি সঞ্জয় মজুমদারসহ সংশ্লিষ্টরা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •