সিবিএন ডেস্কঃ
মহামারি করোনার প্রকোপ ঠেকাতে মালয়েশিয়ায় তৃতীয় ধাপে দেশব্যাপী মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (এমসিও) জারি রয়েছে, যা ২৮ জুন (আগামীকাল) শেষ হওয়ার কথা ছিল।

তবে জাতীয় পুনরুদ্ধার পরিকল্পনা প্রথম ধাপের (এনআরপি) দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা চার হাজারের নিচে নেমে না আসা পর্যন্ত মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী তান শ্রী মহিউদ্দিন ইয়াছিন।

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর বরাত দিয়ে দেশটির সরকারি সংবাদ সংস্থা বারনামা বলছে, গত ১৪ জুন থেকে জারি করা কঠোর লকডাউন ২৮ জুন শেষ হবে না এবং জাতীয় পুনরুদ্ধার পরিকল্পনা বহাল থাকবে।
এদিকে সোমবার অথবা মঙ্গলবার সব স্তরের নাগরিকদের জন্য আরও ব্যাপক সহায়তা ঘোষণা করবে মালয়েশিয়া সরকার। তবে এই সহায়তা তিনটি গ্রুপে উপস্থাপন করা হবে বলে জানিয়েছে সংবাদ সংস্থাটি।
গত ১৫ জুন জাতীয় পুনরুদ্ধার পরিকল্পনা (এনআরপি) ঘোষণার সময় প্রধানমন্ত্রী মহিউদ্দিন ইয়াছিন বলেছিলেন, পরিকল্পনাটি ডেটাভিত্তিক হবে এবং তিনটি প্রাথমিক সূচকে উল্লেখ করেন তিনি।
প্রথম সূচকটি দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, দ্বিতীয়টি দেশের আইসিইউ শয্যা ধারণ ক্ষমতা, তৃতীয়টি হলো দেশের জনগণকে শতকরা টিকা দেওয়া হার।
দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা চার হাজারের নিচে নেমে গেলে সরকার দেশব্যাপী লকডাউন শিথিল করে দ্বিতীয় পর্যায়ে যাওয়ার কথা বিবেচনা করবে। এদিকে সামাজিক কার্যক্রম এবং আন্তরাজ্য ও আন্তজেলা ভ্রমণের নিষেধাজ্ঞা এখনও জারি রয়েছে।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •