শাহেদ মিজান, সিবিএন:

কক্সবাজার সদরের ঝিংলজার ইউনিয়নের খরুলিয়ায় ঘাটপাড়ায় সামান্য কথা কাটাকাটিকে কেন্দ্র করে ছুরিঘাতে মোর্শেদ কামাল (২২) নামের এক যুবক খুন হয়েছেন।

শনিবার বিকাল ৪টার দিকে ঘাটপাড়া বেড়িবাঁধ এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। নিহত মোর্শেদ আলম ঘাটপাড়া এলাকার সৈয়দ আলমের পুত্র।

সত্যতা নিশ্চিত করে স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুর রশিদ জানিয়েছন, নিহত মোর্শেদ ও কোনার পাড়ার ফরিদুল আলমের পুত্র কফিল উদ্দীনের মধ্যে ঠাট্টার ছলে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ক্ষুব্ধ হয়ে একজন অন্যজনকে তিরস্কার করেন। এই সামান্য বিষয়ে  ক্ষুব্ধ হয়ে মোর্শেদ কামালকে আকস্মিক ঝাপটে ধরে মাটিতে ফেলে দেয় এবং পেটে  ছুরিকাঘাত করেন কফিল উদ্দীন। এতে গুরুতর জখম হয় মোর্শেদ আলমের। দ্রুত তাকে উদ্ধার করে লিংকরোডের মেরিন সিটি হাসপাতালে নেয় হয়। সেখানকার চিকিৎসকরা তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।  নেয়ার পথে ডুলাহাজারা পর্যন্ত গেলে গাড়িতে মারা যান মোর্শেদ কামাল। মরদেহ বাড়িতে নিয়ে আসা হয়েছে।

খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) পংকজ বড়ুয়ার নেতৃত্বে পুলিশের দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং রাতে ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে আনা হয়।

সামান্য বিষয় নিয়ে ছুরিকাঘাত করে হত্যার ঘটনায়  এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। এলাকার এই নির্মম খুনে ঘটনায় এলাকার মানুষ চরম ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে। তারা নিরীহ যুবক মোর্শেদ কামালের ঘাতক কফিল উদ্দীনকে গ্রেফতার করে  দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ঘাতক কফিল একজন বখাটে। এখনো ১৬/১৭ বছরের কিশোর হলেও চুরি-ছিনতাইসহ  নানা অপকর্মের সাথে জড়িত রয়েছে সে। সে সব সময় ধারালো ছুরি নিয়ে চলাফেরা। মানুষের সাথে সাথে কথায় কথায় ঝগড়া করে ঘাতক কফিল। তাদের একটি গ্যাংও রয়েছে। এই গ্যাং এলাকার সাধারণ মানুষকে আতঙ্কের মধ্যে রেখেছে।

এদিকে ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে একটি পক্ষ অপচেষ্টা চালাচ্ছে বলে নিহত মোর্শেদের পরিবারের লোকজন অভিযোগ করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •