আলাউদ্দিন, লোহাগাড়া  :

লোহাগাড়া উপজেলার বাড়হাতিয়া ইউনিয়নে ভাবির ছুরিকাঘাতে মোঃ ইউনুছ নামে (৪০) নামে এক দেবরের মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার ( ২৩ জুন ) রাত ৮ টার দিকে এ কুমিরাঘোনা জঙ্গলীপরী পাড়ায় ঘটনা ঘটে। নিহত ইউনুছ ওই এলাকার আলী আহমদের পুত্র।

এ ঘটনায় ঘাতকভাবি নাছিমা আকতার ও তার স্বামী ইউসুফকে আটক করেছে থানা পুলিশ। বড়হাতিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এম ডি জুনাইদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ।

নিহতের স্ত্রী রেহেনা আকতার জানান, গতকাল পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে দেবর ইউনুৃছ সঙ্গে ভাবি নাছিমা আকতার ঝগড়াঝাটি হয়।

এই নিয়ে আজ থানায় অভিযোগ কররেন ইউনুছের বড়ভাই ইউসুফ। পুলিশ সকালে তদন্তরে জন্য যায়৷

বিষয়টি মিমাংসা জন্য আগমীকাল থানায় যেতে বলেন। আজ সন্ধ্যায় দুইভাই এক সাথে হলে পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে দেবর ইউনুছ পেটে ছুরিকাঘাত করেন ভাবি নাসিমা।

পরে তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তৃব্যরত চিকিৎসক ইউনুছকে মৃত ঘোষণা করেন।

লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ জাকের হোসাইন মাহমুদ জানান, ঘটনার পর আমারা ঘাতক ভাবি ও তার স্বামীকে আটক করেছি।

এব্যাপারে আমরা আইনগত পদক্ষেপ নিচ্ছি। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য চমেকে মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •