ইমাম খাইর, সিবিএন:
কক্সবাজার-২ (মহেশখালী-কুতুবদিয়া) আসনের সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক বলেছেন, দেশে চাহিদা অনুযায়ী লবণ মজুদ আছে। সংকট হওয়ার কোন আশংকা নাই। যা আছে তা দিয়ে আমাগী লবণ মৌসুম পর্যন্ত চলবে।

লবণ শিল্পের উন্নয়নে উৎপাদন পর্যায়ে কক্সবাজার জেলা কমিটির সাথে স্টেক হোল্ডারদের মতবিনিময় সভায় এমপি আশেক উল্লাহ রফিক এসব কথা বলেন।

জেলা প্রশাসক মো: মামুনুর রশিদের সভাপতিত্বে গত ২১ জুন অনুষ্ঠিত ভার্চুয়াল সভায় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট সিরাজুল মোস্তাফা, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী, সহসভাপতি রেজাউল করিম, পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান, কক্সবাজার চেম্বারের সভাপতি আবু মোরশেদ চৌধুরী, বাংলাদেশ লবণ মিল মালিক সমিতির সভাপতি নুরুল কবির, কক্সবাজার মিল মালিক সমিতির সভাপতি মো: সামছুল আলম আজাদ, বাংলাদেশ লবণ চাষী কল্যাণ সমিতির সভাপতি মো: মোস্তফা কামাল লবণশিল্পের উন্নয়নে বক্তব্য উপস্থাপন করেন। তারা দেশীয় লবণশিল্প বাঁচাতে সরকারের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

লবণ শিল্পের উন্নয়ন কার্যালয়, কক্সবাজারের ডিজিএম মো: জাফর ইকবাল ভূঁইয়া জানান, ১৫ জুন পর্যন্ত মাঠ পযায়ে লবণ মজুদ ৯.৬০ মে. টন। মিল পর্যায়ে ১.৮৫ লক্ষ মে:টনসহ মোট ১১.৪৫ লক্ষ মে:টন।
এছাড়া পাইপ লাইনে আছে আরো এক লক্ষ মে:টন। প্রতি মাসে লবণের চাহিদা ১.৮৫ লক্ষ মে:টন হিসেবে মজুদ লবণে আরো ৬মাস চলবে। নতুন মৌসুম আসবে ৫ মাস পর।
এনবিআর সুত্র বলছে, এ বছর ৯লক্ষ মে:টন লবণ আমদানি করা হয়েছে। বতর্মানে আমদানি বন্ধ আছে।

অনলাইন সভায় বিভিন্ন উপজেলা লবণ চাষী সমিতির নেতৃত্ববৃন্দ, বিসিক লবণ শিল্পের উন্নয়ন কার্যালয়, জেলা কার্যালয় ও বিসিক প্রধান কার্যালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •