মোঃ নাজিম উদ্দিন, দক্ষিণ চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

চট্টগ্রামের সাতকানিয়া থানা পুলিশ পৃথক অভিযান চালিয়ে ২০ হাজার পিস ইয়াবা বডি উদ্ধার করেছে। ইয়াবা পাচারে জড়িত নারীসহ ৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পুলিশকে ফাঁকি দিয়ে পালিয়ে যায় টেকনাফ পৌরসভার অলিয়াবাদের মো. জোবায়েরের ছেলে মো. মানিক (৩২)। জব্দ করা হয় ইয়াবা পাচারে ব্যবহৃত একটি মিনি পিকআপ ও একটি এক্স নোয়া গাড়ি। ২১ জুন সোমবার মধ্য রাতে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের আধার মানিক দরগাহর সামনে ও মৌলভীর দোকান এলাকায় সড়কে তল্লাশি চালিয়ে ইয়াবাগুলো উদ্ধার করে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামের মুন্সিরহাট ইউপির ১নং ওয়ার্ড সিংরাই এলাকার জাকির হোসেনের ছেলে আবুল কালাম আজাদ ওরফে জিসান (২১), পটিয়া উপজেলার হাইদগাঁও ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড বানিয়া পাড়ার মৃত বাবুল চৌধুরীর ছেলে শিবলু মোহাম্মদ (২৯), টেকনাফ পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ড পুরাতন পল্লান পাড়ার মনির আহমদের ছেলে নুরুল কবির (২৪) ও টেকনাফ পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ড অলিয়াবাদ ফোরকানের বাড়ির মৃত মো. ফোরকানের স্ত্রী দিলুয়ারা বেগম ওরফে দিলদার (৩৫)।
জানা যায়, থানা পুলিশের সহকারি উপ-পরিদর্শক মারুফ সিকদার মৌলভীর দোকান এলাকায় সোমবার রাত ২টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রামগামী একটি পিকআপের স্টিয়ারিং এর নিচে তল্লাশী চালিয়ে ৩ হাজার পিস ইয়াবাসহ আবুল কালাম আজাদ জিসানকে গ্রেপ্তার করে। অপরদিকে রাত সাড়ে তিনটার দিকে মহাসড়কের আন্দার মার দরগাহ এলাকায় উপ-পরিদর্শক জাকির হোসেন একটি এক্স নোয়া গাড়ির সিটের চ্যাসিস কেটে লুকানো অবস্থা থেকে ১৭ হাজার ইয়াবা ও এক নারীসহ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করে। এসময় টয়লেটে যাওয়ার অজুহাত দেখিয়ে মো. মানিক পালিয়ে যায়।
সাতকানিয়া থানার ওসি আনোয়ার হোসেন বলেন, সোমবার রাতে মহাসড়কে পৃথক অভিযান ২০ হাজার ইয়াবাসহ। ৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে থানায় মামলা রুজু হয়েছে। আসামিদের মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •