আলাউদ্দিন, লোহাগাড়া প্রতিনিধি :

লোহাগাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডেন্টাল সার্জন ও ডেন্টাল টেকনোলজিস্ট কর্মরত থাকলেও ডেন্টাল চেয়ারটি গত ৩ বছর ধরে বিকল অবস্থায় পড়ে আছে। ফলে দাঁতের চিকিৎসা বঞ্চিত হচ্ছে লোহাগাড়ার মত প্রান্তিক জনপদের মানুষ। চট্টগ্রাম শহরে গিয়ে দাঁতের চিকিৎসা নিতে হচ্ছে তাদের।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, হাসপাতালে ডেন্টাল চেয়ার বিকল থাকায় শুধু রোগীদের মৌখিক বর্ণনার ভিত্তিতে প্রেসক্রিপশন (ব্যবস্থাপত্র) প্রদান করা হচ্ছে। চিকিৎসক থাকলেও যন্ত্রপাতির অভাবে তাঁরা রোগীদের ডেন্টাল সার্জারি, ফিলিং, রুট ক্যানেল, স্কেলিং করা করতে পারছেন না। এতে ব্যাহত হচ্ছে দাঁতের রোগীদের চিকিৎসা কার্যক্রম। কাঙ্খিত চিকিৎসা সেবা না পেয়ে রোগীদের ছুটতে হচ্ছে দূর-দূরান্তের প্রাইভেট হাসপাতালে।

দন্ত বিভাগে চিকিৎসা নিতে আসা কয়েকজন রোগীর সাথে কথা বলে জানা যায়, হাসপাতালে দাঁতের চিকিৎসা করতে এসে চেয়ার বিকল থাকায় চিকিৎসা না করে তাদের হাতে ব্যবস্থাপত্র ধরিয়ে দিয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে লোহাগাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ হানিফ জানান, ’ডেন্টাল চেয়ারের জন্য আমরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে চিঠি পাঠিয়েছি । তবে ডেন্টাল সার্জারি, ফিলিং, স্কেলিং করা না গেলেও কিন্তু দাঁত ওঠানো হয় বলে জানান তিনি।

এদিকে লোহাগাড়ার জনসাধারণ অচল ডেন্টাল ইউনিট সচল করতে সাতকানিয়া-লোহাগাড়া আসনের সংসদ ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজাম উদ্দিন নদভী ও স্বাস্থ্য মন্ত্রীর আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •