সিবিএন ডেস্ক
সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসি ইরানের নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন। শনিবার প্রকাশিত তাঁর প্রথম বিবৃতিতে পরিশ্রমী, বিপ্লবী ও দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন গড়ে তোলার অঙ্গীকার করেছেন নতুন প্রেসিডেন্ট।

বিবৃতিতে ইব্রাহিম রায়িসি বলেন, ‘প্রিয় ইরানের জনগণ, আমি যেরকম নির্বাচনে স্বাধীনভাবে প্রবেশ করেছি, ইনশা আল্লাহ আপনাদের ভোটের শক্তি এবং আমার প্রতি আপনারা যে বিরল বিশ্বাস স্থাপন করেছেন, তার ভিত্তিতে আমি পরিশ্রমী, বিপ্লবী ও দুর্নীতিবিরোধী প্রশাসন গড়ে তুলব।’

রায়িসি আরও বলেন, ১৮ জুন নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট সারা জাতির প্রেসিডেন্ট এবং কেউ তাঁর পক্ষে ভোট দিক বা না দিক, তিনি সম্পূর্ণভাবে প্রজাতন্ত্রের সব জনগণের সেবক।
এর আগে গত শুক্রবার ইরানের ত্রয়োদশতম প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। স্থানীয় সময় সকাল ৭টা থেকে শুরু হয়ে একটানা ১৯ ঘণ্টা ভোট গ্রহণ করা হয়। শনিবার দিবাগত রাত ২টায় নির্বাচন শেষ হওয়ার পর ভোট গণনা করা হয়।
শনিবার নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণায় এক সংবাদ সম্মেলনে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুর রেজা রহমানি-ফাজলি বলেন, দেশটিতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে মোট দুই কোটি ৮৯ লাখ ৩৩ হাজার চারজন ভোটার অংশ নিয়েছেন। এর মধ্যে ৬১ দশমিক ৯৫ ভাগ ভোট পেয়ে জয়ী হন রায়িসি। তাঁর প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যা এক কোটি ৭৯ লাখ ২৬ হাজার ৩৪৫। তাঁর নিকটবর্তী মোহসিন রেজায়ি পেয়েছেন ১১ দশমিক ৭ ভাগ ভোট। তিনি পেয়েছেন ৩৪ লাখ ১২ হাজার ৭১২ ভোট।
একমাত্র সংস্কারপন্থি প্রার্থী ও ইরানের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাবেক প্রধান আবদুন নাসের হেমমাতি পেয়েছেন ৮ দশমিক ৩ ভাগ ভোট। তিনি ২৪ লাখ ২৭ হাজার ২০১ ভোট পেয়েছেন। চতুর্থ প্রার্থী আমির হোসাইন কাজীজাদেহ হাশেমি ৩ দশমিক ৪ ভাগ ভোট। তিনি প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যা নয় লাখ ৯৯ হাজার সাত ৭১৮। তিনি আরও জানান, মোট ৩৭ লাখ ২৬ হাজার ৮৭০ ভোট বাতিল করা হয়েছে।
আগামী আগস্টের শুরুতে রায়িসি বর্তমান প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির কাছ থেকে দায়িত্ব গ্রহণ করবেন বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি ও ইরানের পার্লামেন্টের স্পিকার মোহাম্মদ বাকির কালিবাফ পৃথকভাবে তেহরানে রায়িসির প্রচারণা দপ্তরে তাঁর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে তাঁকে শুভেচ্ছা জানান।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •