বার্তা পরিবেশক:

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আগামী ২৩ জুন অনুষ্ঠিত হবে। যথাযোগ্য মর্যাদায় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপনের লক্ষ্যে জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে উপজেলা ও সহযোগী সংগঠন নিয়ে এক প্রস্তুতি সভা  ২০ জুন জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এড. রনজিত দাশের সঞ্চালনায় বিকাল ৪টায় অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় বক্তব্য রাখেন-জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি রেজাউল করিম, সাংস্কৃতিক সম্পাদক এড. তাপস রক্ষিত, উপ-প্রচার সম্পাদক এম.এ. মনজুর, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আবু তালেব, পৌর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বাবু উজ্জ্বল কর, সদর উপজেলা সাধারণ সম্পাদক মাহামুদুল করিম মাদু, রামু উপজেলা সাধারণ সম্পাদক শামশুল আলম মন্ডল, উখিয়া উপজেলা সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী, কৃষকলীগ সভাপতি আলহাজ্ব রশিদ আহমদ, শ্রমিকলীগ সভাপতি জহিরুল ইসলাম সিকদার, যুবলীগ সভাপতি সোহেল আহমদ বাহাদুর, সাধারণ সম্পাদক শহিদুল হক সোহেল, শ্রমিক লীগ সাধারণ সম্পাদক শফিউল্লাহ আনচারী, যুব মহিলা লীগ সভাপতি আয়েশা সিরাজ, সাধারণ সম্পাদক তাহমিনা চৌধুরী লুনা, পৌর আওয়ামী লীগ নেতা আসিউল মওলা, এ.বি. ছিদ্দিক খোকন প্রমুখ।

প্রস্তুতি সভায় মেয়র মুজিবুর রহমান বলেন-মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে প্রায় ১ যুগ ধরে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় রয়েছে। এ সময়ে মানুষের মৌলিক চাহিদার বেশির ভাগ পূরণ হয়েছে। অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি এসেছে। তার সুযোগ্য নেতৃত্বে সারা বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হয়েছে। তিনি গরীব অসহায় মানুষের কল্যাণে ব্যাপক কর্মসূচী হাতে নিয়েছেন দেশে প্রায় ৬৬ হাজার গৃহহীনদের মধ্যে ঘর ও জমি প্রদান করেছেন। তার গৃহিত কর্মসূচীর মধ্যে মানব কল্যাণ ও মানব উন্নয়ন প্রধান্য পেয়েছে। যে কারণে মানুষ আওয়ামী লীগ শাসনামলে উন্নতির উচ্চ শিখড়ে আরহণ করার স্বপ্ন দেখছে।

প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কক্সবাজার জেলা শাখা ২৩ জুন দিনব্যাপী ব্যাপক কর্মসূচী গ্রহণ করেছে। কর্মসূচীর মধ্যে সকাল ৭টায় দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, সকাল ১০টায় স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে মাল্যদান এবং বিকাল ৩টায় শহীদ দৌলত ময়দানে আলোচনা সভা। এছাড়াও দলীয় কার্যালয়সহ শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূণ স্থানে আলোক সজ্জা করা হবে। সরকারের বিভিন্ন মেঘা প্রকল্প ও উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের চিত্র ও বিল বোর্ড প্রদর্শন করা হবে।

জেলার আওতাধীন সকল উপজেলা ও সাংগঠনিক উপজেলাকে অনুরুপ কর্মসূচী পালন করার জন্য বিশেষ ভাবে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •