আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
বিশ্বে আশঙ্কাজনকভাবে ছড়িয়ে পড়া করোনা মহামারির মধ্যে এবার পবিত্র হজ পালনে সমবেত হওয়া হাজিদের স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তার দিকে বিশেষ নজর দিচ্ছে সৌদি আরব কর্তৃপক্ষ। এ বছর হজকালে হাজিদের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এই পানি বিতরণের প্রস্তুতি হিসেবে নেওয়া হয়েছে নতুন উদ্যোগ। আর অংশ হিসেবে চলতি সপ্তাহ থেকে সৌদি আরবের পবিত্র মক্কায় জমজম কূপের পানি বিতরণ করছে রোবট। খবর এএফপির।

গত শনিবার দেশটির সরকার এক ঘোষণায় জানায়, সৌদি নাগরিক ও দেশটিতে বসবাসকারী বিদেশিদের মধ্য থেকে মোট ৬০ হাজার মুসল্লি এবার হজ পালন করতে পারবেন।

শনিবার সৌদি সরকারের ঘোষণায় বলা হয়, এ বছর যে ৬০ হাজার মুসল্লি হজ পালন করতে পারবেন, তাঁদের দীর্ঘস্থায়ী কোনো অসুখ থাকা যাবে না। বয়স হতে হবে ১৮ থেকে ৬৫ বছরের মধ্যে। উপযুক্ত ব্যক্তিদের করোনার টিকার পূর্ণ ডোজ নিতে হবে অথবা অন্তত ১৪ দিন আগে এক ডোজ নিতে হবে। করোনায় আক্রান্ত হয়ে সেরে ওঠা ব্যক্তি যাঁরা টিকা নিয়েছেন, তাঁরাও হজ পালনের সুযোগ পাবেন।

সৌদি স্বাস্থ্য ও হজ মন্ত্রণালয় বলেছে, তারা মানুষের স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তাকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে। মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, হাজিদের সংখ্যা বেঁধে দেওয়ার সিদ্ধান্তের বিষয়ে তাঁরা মুসলিম দেশগুলোর কাছ থেকে ইতিবাচক সাড়া পেয়েছেন। এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে ইসলামি সহযোগিতা সংস্থা (ওআইসি)।

গত মাসে সৌদি আরবের সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, প্রাথমিকভাবে দেশটির কর্তৃপক্ষ এবার টিকা নেওয়া কিছুসংখ্যক বিদেশিকে হজ পালনের সুযোগ দেওয়ার কথা ভাবছিল। কিন্তু কে কোন টিকা নিয়েছেন, তা নিয়ে বিভ্রান্তি, টিকার কার্যকারিতা এবং করোনার নিত্যনতুন ধরন নিয়ে উদ্বেগের কারণে কর্মকর্তারা সেই চিন্তাভাবনা থেকে সরে যান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •