ফেসবুক কর্ণার:
আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান, গতানুগতিক চটকদার বাণিজ্যিক ওয়াজের ভীড়ে স্রোতের বিপরীত এই তরুণ বক্তার সাবলীল ও প্রাঞ্জল উপস্থাপনা, কোরান-হাদিসের আলোকে তথ্যবহুল ও বিশ্লেষণধর্মী বক্তব্য সত্যি নজরকাড়ার মতো। আমি ইউটিউব ও ফেসবুকে তার বেশ কয়েকটি আলোচনা শুনেছি, বেশ ভালো লেগেছে।
তার কোন বক্তব্য যদি রাষ্ট্রবিরোধী হয়, যদি কোন বক্তব্য জঙ্গিবাদকে উৎসাহিত করে বা কারো চেতনায় আঘাত করে, তাহলে মামলা হোক, তাকে গ্রেফতার করে বাংলা ভাই বা আব্দুর রহমানের মতো আইনানুগ প্রক্রিয়ায় সর্বোচ্চ বিচার হোক, কোন আপত্তি নেই।
কিন্তু আদনানসহ চারজন জলজ্যান্ত মানুষ উধাও হয়ে যাবে, ৬ দিনেও হদিস মিলবে না, তাদের মা-বোন, স্ত্রী থানায় থানায় অসহায় ছুটে বেড়াবে, একটা সভ্য রাষ্ট্রে এটা কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় নাহ। তারা কোথায় আছে, তাদের ভাগ্যে কি ঘটেছে সেটা প্রশাসনকেই খুঁজে বের করতে হবে।
আর প্রিয় সাংবাদিক ভাই-বোনেরা, রোজিনা আপা আর পরিমনির জন্য যেভাবে জাতির দর্পণ হিসেবে এক হয়েছিলেন, আবু ত্ব-হা আদনান ও তার তিন সঙ্গীর এর জন্যও লিখুন, বলুন।
একজন তরুণ আলেম নিখোঁজ হবার বিষয়ে লেখাতে যারা নেতিবাচক মন্তব্য করছেন, তাদের মাঝে কেউ এভাবে নিখোঁজ হলেও সন্ধান চেয়ে লিখবো, বলবো। বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলীর বিষয়েও লিখেছিলাম।
এটা ভুলে গেলে চলবে নাহ, দল-মত নির্বিশেষে সর্বস্তরের জনগণের জান-মালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা রাষ্ট্রযন্ত্রের অবশ্য পালনীয় কর্তব্য আর এই নিরাপত্তাটুকু পাওয়া জনগণের সাংবিধানিক অধিকার!

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক
Golam Rabbani এর ফেসবুক টাইমলাইন থেকে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •